গ্রহরাজ শনিদেব অসন্তুষ্ট হলেই মানব জীবনে আসে চরম বিপত্তি, সাড়ে সাতির জালে জড়িয়ে পড়ে নানা কাজ

গ্রহরাজ শনির সাড়েসাতি ও ঢাইয়ার সময় এমন কোনো কাজ করা উচিত নয় যাতে তিনি অসন্তুষ্ট হন। এই দুটি সময় মানুষের জীবনে গুরুত্বপূর্ণ সময়। এই সময় হয়তো কিছু কিছু মানুষের ভালো সময় পর্যবসিত হয়। আবার অনেকের খারাপ সময়েও চলে আসে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, কোন ভালো কাজে যাওয়ার সময় বাধা আসতে পারে সাড়েসাতি ও ঢাইয়ার সময়। অর্থাৎ শুভকার্য খারাপ হয়ে যেতে পারে।

সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করছে আপনারা কিরকম কর্ম করেছেন তার উপর। আপনি যদি ভাল কর্ম করে থাকেন তাহলে সাড়েসাতি ও ঢাইয়ার সময় হতে পারে আপনার গ্লেডেন টাইম। যদি কোন খারাপ কর্ম করে থাকে তাহলে এই সময়ের মধ্যে আপনাকে নানা সমস্যার মুখোমুখি পড়তে হতে পারে। জীবনে নানাধরনের বাঁধাও আস্তে পারে।তখন শুধু একটা কথাই মনে হবে এই সমস্যার হাত থেকে কীভাবে আমি মুক্তি পাব এবং সমস্ত ধরনের বাধা আমার জীবন থেকে কেটে যাবে।জ্যোতিষ মতে, সাড়েসাতি বলতে শনিদেব সাড়ে সাত বছর আপনার রাশির উপর বিরাজমান হবেন। আর ঢাইয়া বলতে বোঝায় আড়াই বছর গ্রহরাজ আপনার উপর নজর রাখবেন।

সাড়েশাতি ও ঢাইয়ার সময় যে কাজগুলো করলে আপনি কিছুটা হলেও এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। সেই কাজ গুলি হল প্রত্যেকদিন হনুমান দেবের পুজো করুন এবং হনুমান চালিশা পড়ুন। এছাড়াও আপনি মহাদেবের পুজো করতে পারেন প্রত্যেকদিন এবং চাইলে মা কালী পুজো করতে পারেন। দেখতে পাবেন সাড়েশাতি ও ঢাইয়ার সময় আপনার কাজে ততটা বাধা আসছেনা এবং সমস্যা থেকে অনেকটা মুক্তি পাচ্ছেন।