স্নানের সময় মে’নে চ’লু’ন এই কয়েকটি ক’থা! দূরে থা’ক’বে দারিদ্র

স্নান শুধু শরীরকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য তা কিন্তু নয়। স্নানের কারণে আমাদের মন এবং শরীরে জমে থাকা ময়লা বাজে চিন্তা ভাবনা দূর হয়ে যায়। অশুভ যা কিছু আছে তা দূর হয়ে যায়। বাস্তুশাস্ত্রে বলেছে যে প্রতিদিন স্নান করার মাধ্যমে আমাদের শরীরের একটি পজেটিভ এনার্জি আসে। সেই কারণে প্রতিদিন আমাদের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ভাবে প্রত্যেকের নিয়মিতভাবে স্নান করা উচিত। স্নানের সময় মনে কোনো বাজে অথবা খারাপ চিন্তা ভাবনা আনা উচিত নয়।

১. স্নানের সময় মনে কোন কুচিন্তা এবং অন্যের ক্ষতি করার মতন কোনো চিন্তা মাথায় আনবেন না।

২. শাস্ত্রে বলা হয় যে জলে নারায়ণ দেবতা বাস করেন। তাই সবার প্রথম স্নান করার সময় মাথায় জল দেবেন। ভুল করেও কখনো পায়ে জল দেবেন না।

৩. স্নান করার পর প্রথমেই আপনার শিরদাঁড়া থেকে জল মুছতে হবে। কারণ অনেকেই জানেনা যে শিরদাঁড়া থেকে আগে জল মুছে নিতে হয় তাহলে আপনার কোন আর্থিক সমস্যা আসবে না দারিদ্রতা দূর হয়ে যাবে। তাই স্নান করার পরে সবার প্রথম শিরদাঁড়া থেকে জল মুছে তারপর শরীরের অন্যান্য জায়গা বুঝবেন।

৪. বাড়িতে যে কজন সদস্য আছে প্রত্যেকে জন্য স্নানের সময় তেল, চিরুনি, শ্যাম্পু, সাবান, সব আলাদা আলাদা করে রাখা উচিত।