পুলিশ পিটিয়ে অনুতপ্ত টিকিয়াপাড়া, এবার পুলিশকে লক্ষ্য করে পুষ্পবৃষ্টি

চীন দেশ থেকে ছড়িয়ে পড়া করো না ভাইরাসের এখনো পর্যন্ত নিশ্চিত কোনো টিকা আবিষ্কার না হওয়ার জন্য বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই লকডাউন করে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়ানোকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। অন্যান্য দেশের মতো ভারতবর্ষে ওই লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।কয়েকদিন আগেই আমরা দেখলাম হাওড়ার টিকিয়াপাড়া লকডাউন কার্যকর করতে গিয়ে দুজন পুলিশ আহত হয়। উত্তেজিত জনতা পুলিশদের মেরেছে বলে খবর পাওয়া যায়।

রবিবার এই টিকিয়াপাড়া অন্য চিত্র উঠে আসে।এদিন ওই এলাকার শান্তি কমিটি ও লকডাউন সোলজারদের নিয়ে এসিপি (‌সেন্ট্রাল) অলোক দাশগুপ্তর নেতৃত্বে রুটমার্চ করেন পুলিশ আধিকারিক ও কর্মীরা। তখনই ওই এলাকার মানুষরা রাস্তার দুপাশে বাড়ির ছাদে, বারান্দায় দাঁড়িয়ে পুলিশের ওপর পুষ্পবৃষ্টি করলেন। সবাই একসঙ্গে হাততালি দিয়ে পুলিশকে অভিনন্দন জানালেন। পুলিশ আধিকারিক ও কর্মীরাও তাঁদের দিকে হাত নেড়ে আশ্বাস জানালেন এই দুর্দিনে পাশে থাকার।

স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে জানা যায় পুলিশ হলো আমাদের সুখ দুঃখের সঙ্গী তাই তাদের কাজে উৎসাহিত করার জন্যই এই পুষ্পবৃষ্টির আয়োজন করা হয়েছে। কয়েকদিন আগেই টিকিয়াপাড়ায় পুলিশের ওপর উত্তপ্ত জনতার চড়াও হওয়ার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এসিপি (‌সেন্ট্রাল) অলোক দাশগুপ্ত বলছিলেন, ‘‌সেদিনের ঘটনা নিয়ে এলাকার সকলেই অনুতপ্ত। এখন থেকে শুধু ওই এলাকার মানুষদের সাহায্যের জন্য ১০০ জন লকডাউন সোলজার থাকছে। তাঁদের নিয়ে এদিন বিকেলে আমরা যখন এলাকা পরিদর্শন করছিলাম তখনই রাস্তার দু’‌ধারে বাড়ির বারান্দা, ছাদ বা জানালা থেকে আমাদের ওপর ফুল ছুড়ে হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানান এলাকার বাসিন্দারা।’‌

টিকিয়াপাড়ায় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ধৃত মূল অভিযুক্ত শাকিবের পরিবারের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল সেই সিটি পুলিশ। শনিবার পুলিশ আধিকারিকেরা মিলে শাকিবের মা রেহেনার হাতে ৫০ কেজি চাল, ৪০ কেজি আলু, ২০ কেজি আটা ও ১৮ কেজি ডাল তুলে দিলেন ।এ প্রসঙ্গে হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি (সদর) প্রিয়ব্রত রায় বলেন, ‘শহরের অভুক্ত মানুষের পাশে সবসময় দাঁড়িয়েছে পুলিশ। এক্ষেত্রেও তেমনটাই করা হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে কারও কোনও শত্রুতা নেই। এর সঙ্গে অভিযুক্ত শাকিবের অপরাধের কোনও যোগ নেই। ধৃতের বিরুদ্ধে তদন্ত যেমন চলছে তা চলবে। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্তু তা বলে কারও বাড়ির লোক অভুক্ত থাকবে এটা পুলিশ হতে দিতে পারে না।