অবাক করা ফিচার, একদম জলের দরে অনলাইনে বিকোচ্ছে Moto E7 Plus

সাম্প্রতিক লঞ্চ করা মোটোরওলার নতুন স্মার্টফোন “Moto E7 Plus” ইতিমধ্যেই বাজারে বেশ পসার জমিয়েছে। গত ২৩শে সেপ্টেম্বর ফ্লিপকার্ট এক্সক্লুসিভ হিসেবে ভারতে প্রথম লঞ্চ করেছিল এই স্মার্টফোনটি। এটি শুধুমাত্র ফ্লিপকার্টে পাওয়া যাচ্ছে, বাজারে এই ফোনটি এখনো লাঞ্চ করেনি। পকেট বান্ধব এই ফোনটির আকর্ষণীয় ফিচারস গ্রাহকদের অত্যন্ত আকৃষ্ট করছে বলে জানা গেছে। ফ্লিপকার্ট এক্সক্লুসিভ হিসেবে এই ফোনটির দাম করা হয়েছে মাত্র ৯৪৯৯ টাকা। ফোনটি আপাতত দুটি বিশেষ আকর্ষণীয় কালার যেমন ‘মিস্ট ব্লু’ এবং ‘টুইলাইট অরেঞ্জ’ কালারে পাওয়া যাচ্ছে।

এর আগেও মোটোরওলার লঞ্চ করা স্মার্টফোনটি বিশেষভাবে আকৃষ্ট করেছিল গ্রাহকদের তাই কোম্পানি এবারেও দাবি করছেন এইবারের নতুন স্মার্টফোনটি আরো বিপুলভাবে গ্রাহকদের মন জয় করবে। কেন এই ফোনটি গ্রাহকদের মন জয় করবে সেই বিষয়ে বলতে গেলে ফোনটির বিশেষ কিছু আকর্ষণ কে আপনাদের সামনে তুলে ধরতে হয়। ফোনটির কিছু চমক হলো এর আকর্ষণীয় ডিসপ্লে। ফোনটিতে আছে ফ্রন্টে গোরিলা গ্লাস দ্বারা সুরক্ষিত ৬.২ ইঞ্চির আকর্ষণীয় এইচ.ডি ডিসপ্লে।

ফোনটির দ্বিতীয় আকর্ষণ হলো ফোনটির প্রসেসর। ৬২৩ এর চিপসেট যুক্ত স্ন্যাপড্রাগন এর সাথে সাথে গ্রাহকরা পেয়ে যাচ্ছে অক্টাকোর প্রসেসর এই স্মার্টফোনটিতে। ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম হল “অ্যান্ড্রয়েড ভি ৯.০ পিআই”। শুধু তাই নয় এর সঙ্গে থাকছে ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ক্যাপাসিটি এই ফোনটির মধ্যে। ফোনটি দেখতেও বিশেষ আকর্ষণীয়। গ্রাহকদের জন্য থাকছে ফোনটির সম্মুখে আকর্ষণীয় ওয়াটার ড্রপ নচ ডিসপ্লে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর টি থাকছে ফোনের পিছন দিকে।

ফোনটির সাথে থাকছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট, নিচের দিকে থাকছে ৩.৫ এম.এম হেডফোন জ্যাক, এছাড়াও থাকছে স্পিকার গ্রিল। ফোনটির বিশেষ কিছু আকর্ষণ এর মধ্যে অন্যতম একটি আকর্ষণ হলো ফোনটির ক্যামেরা। নাইট ভিশন এর সুবিধা সহ থাকছে ৪৮ মেগাপিক্সেল ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা। ফোনটির সর্বশেষ্ঠ আকর্ষণ হলো ফোনটির ব্যাটারি। এটিতে গ্রাহকরা আরো বেশি আকর্ষিত হয়ে পড়ছেন। ফোনটিতে আছে আকর্ষণীয় ৫০০০ এম.এইচ এর শক্তিশালী ব্যাটারি। পকেট বান্ধব দামে আকর্ষণীয় এই বিপুল ফিচারস এর স্মার্টফোনটি খুব কম সময়ের মধ্যেই গ্রাহকদের মন জয় করেছে।