আপনার হাতের রেখায় এই চিহ্নটি স্পষ্ট বোঝা যায়? তবে নিত্যসঙ্গী হবে সাফল্য, জেনে নিন

জ্যোতিষশাস্ত্র যারা বিশ্বাস করেন তাদের সব থেকে বেশি বসবাস আমাদের এই ভারতবর্ষে। লক্ষ লক্ষ বছর থেকে আমাদের এই ভারতে চলে আসছে জ্যোতিষ বিদ্যা চর্চা। বিশেষত হাতের রেখা বিশ্লেষণ করে যেকোনো মানুষের মানসিক অবস্থা এবং ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করা যেতে পারে এই বিদ্যার সাহায্যে। জ্যোতিষ বিদ্যা অনুযায়ী, মানব জীবনের ভাগ্যের উল্লেখ থাকে তাদের হাতের রেখায়।আমাদের সবার হাতে যে আঁকিবুকি কাটা থাকে তাতে লেখা থাকে আমাদের ভবিষ্যত এবং চরিত্র।
সাধারণত হাতে যে চিহ্ন গুলি থাকে সেগুলি হল চতুস্কোন চিহ্ন, তারা চিহ্ন, ক্রস চিহ্ন, এবং দ্বীপ চিহ্ন। এই চিহ্ন গুলি দেখে একজন মানুষের ভাগ্য সম্পর্কে ধারণা করতে পারা যায়।

হস্তরেখা বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী, হাতে মঙ্গলের ক্ষেত্রে তারা চিহ্ন থাকলে জাতক জাতিকারা দয়ালু এবং সর্বক্ষেত্রে দৃঢ় স্বভাবের হয়। এরা খুব সহজেই সাফল্য অর্জন করতে পারে জীবনে।জীবনের প্রথম দিকে প্রচুর পরিমাণে পরিশ্রম করতে হলেও পরবর্তী জীবন সুখময় হয়। হাতে শুক্রের ক্ষেত্রে যদি তারা চিহ্ন থাকে তাহলে জাতক জাতিকা বিপরীত লিঙ্গের ব্যক্তির সঙ্গে সব সময় উপভোগ করতে চায় সুখ।

আপনার হাতে যদি রবির ক্ষেত্রে এই চিহ্ন থাকে,তাহলে আপনি শিল্পী সাহিত্য এবং কাব্য অনুশীলনে খ্যাতি অর্জন করতে পারবেন। সেইসঙ্গে হতে পারেন সফল জননেতা। জাতক জাতিকার হাতে চন্দ্রের ক্ষেত্রে যদি তারা চিহ্ন থাকে তাহলে তারা কল্পনাবিলাসী হয়। চন্দ্রের ক্ষেত্র যদি নিচু হয় তাহলে এই চিহ্নের ভালো ফল পাওয়া যায়।কল্পনা মূলক লেখা অথবা আবিষ্কারের ক্ষেত্রে সম্মান লাভ করতে পারে এরা।

আপনার হাতে বৃহস্পতির স্থানে যদি থাকে এই চিহ্ন তাহলে খ্যাতির শীর্ষে আপনাকে পৌঁছতে কোন বাধা সৃষ্টি করতে পারবে না কেউ। এই ব্যাক্তিরা কোন দলের দলনেতা হতে পারেন। বুধের ক্ষেত্রে যদি এই চিহ্ন থাকে তাহলে সেই ব্যক্তি হবে অত্যান্ত বুদ্ধিমান এবং প্রখর স্মৃতিশক্তি র অধিকারী। এরা নানান বিষয়ে পারদর্শী হন এবং বাকপটু হন।বিজ্ঞান এবং বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে উন্নতি করতে পারেন এনারা।