UPSC-নিয়ে বিরাট রায়, সর্বোচ্চ সীমা পার হলে দেওয়া যাবে না পরীক্ষা

ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার নিয়ম অনুসারে জেনারেল ক্যাটাগরির প্রার্থীরা ৩২ বছর বয়স পর্যন্ত সর্বোচ্চ ছয় বার পরীক্ষায় বসতে পারেন। এই নিয়মে বদল চেয়ে অন্তত আর একবার ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বসার অনুমতি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ইউপিএসসি প্রত্যাশীরা। তাদের দাবি ছিল, করোনার কারণে তারা সঠিকভাবে প্রস্তুতি নিতে পারেননি। তাই তাদের আর একবার পরীক্ষায় বসার সুযোগ দেওয়া হোক।

এই মর্মে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন বহু পরীক্ষার্থী। তবে তাদের সেই আবেদন সম্প্রতি খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে নির্দিষ্ট সময় সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পরেও ইউপিএসসি প্রত্যাশীদের পরীক্ষায় বসতে দেওয়া নিয়ে কেন্দ্রের অনীহার কারণেই এই আবেদনটি বাতিল হয়ে গিয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ইউপিএসসি প্রত্যাশীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিমকোর্টের তরফ থেকে কেন্দ্রের কাছে এই মর্মে একটি নোটিস পাঠানো হয়েছিল। সেই নোটিসে জানতে চাওয়া হয়েছিল বয়স সীমা না বাড়িয়ে ইউপিএসসি প্রত্যাশীদের আরেকবার পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার সুযোগ দেওয়া যায় কি না। সেই নোটিসের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্র জানিয়েছে, আবেদনকারীদের অতিরিক্ত সুযোগ দেওয়া মানে অন্যান্য চাকরি প্রার্থীদের বঞ্চনা করা হবে।

কেন্দ্রের সেই জবাবের পক্ষেই রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তাই করোনার জন্য যারা সঠিক ভাবে প্রস্তুতি না নিতে পেরে পরীক্ষা দিয়েছিলেন তাদের আরেকবার ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় বসার সম্ভাবনা বাতিল হয়ে গেল। নির্দিষ্ট বয়স সীমা এবং চাকরির পরীক্ষায় বসার মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার পর প্রত্যাশীদের আর পরীক্ষায় বসতে দেওয়া যাবে না বলেই স্পষ্ট করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।