ইনস্টাগ্রামে দুজন দুজনকে করলেন আনফলো, নিখিল-নুসরাতের সম্পর্কে চিড় ধরা নিয়ে গুঞ্জন টলিপাড়ায়

এতদিন সেলেব দম্পতিদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার লাইমলাইট জুড়ে ছিলেন শ্রাবন্তী-রোশন জুটি। তবে এবার সেই লাইমলাইট ঘুরে গেল নিখিল এবং নুসরাত জুটির দিকে! টলিউডে এখন রীতিমতো বিচ্ছেদের হাওয়া বইছে। এমতাবস্থায় শ্রাবন্তী-রোশান জুটিকে ছেড়ে নেটিজেনদের সম্পূর্ণ নজর এখন নিখিল-নুসরাতের উপরেই গিয়ে পড়েছে। নিখিল এবং নুসরাত সম্প্রতি একে অপরের থেকে বিচ্ছিন্ন থাকতে শুরু করেছেন।

তাদের সোশ্যাল আকাউন্ট হাতড়ে দেখা গিয়েছে, তারা দুজনেই একে অপরকে সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম থেকে আনফলো করে দিয়েছেন। এর থেকে জল্পনা গড়াতে শুরু করে। সম্প্রতি নুসরাতের জন্মদিনের সেলিব্রেশন ছিল। সেখানেও নিখিলকে দেখা যায়নি। এমনকি তাকে বার্থডে উইশ পর্যন্ত করেননি নিখিল! নুসরাত অবশ্য স্বীকার করে নিয়েছেন, তারা একে অপরের থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছেন। সব মিলিয়ে নিখিল এবং নুসরাতকে নিয়ে নেটিজেনের মধ্যে জল্পনার পারদ ক্রমাগত উপরের দিকেই উঠছে।

সাংসদ হওয়ার পর, ধর্মের বেড়াজাল টপকে নুসরাত এবং নিখিল একে অপরের সঙ্গে বিবাহসূত্রে আবদ্ধ হন। এই নিয়ে অবশ্য তাকে কম গঞ্জনা সহ্য করতে হয়নি। মৌলবাদীদের থেকে উড়ে এসেছে হুমকি। তবে কোনোকিছুই গায়ে মাখেননি অভিনেত্রী। সর্বোপরি তাদের ভালোবাসার জয় হয়েছিল। তাহলে কি এমন ঘটলো যে দেড় বছরের মাথাতেই একে অপরের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন তারা?

নুসরাত জানাচ্ছেন, দোষ কিন্তু একা তার নয়। আমাদের সমাজ বরাবরই সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার ক্ষেত্রে মহিলাদের উপরেই সমস্ত দায়ভার চাপিয়ে দিতে চায়। তাদের ক্ষেত্রে যা হয়েছে, তাতে তার কোনো ভুল ছিল না বলেই দাবি করছেন নুসরাত জাহান। তবে সাম্প্রতিক ঘটনাবলী কিন্তু নেটিজেনের নজর অন্যদিকে ঘোরাতে বাধ্য করছে। বি-টাউনে খবর, নিখিলকে ছেড়ে আপাতত টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গেই ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন নুসরাত। সে কথা অবশ্য তিনি নিজে স্বীকার করেন নি। এখন তাদের সম্পর্কের মোড় কোন দিকে ঘোরে, তা সময় বলবে।