CBI তদন্তে ক্রমশ চাপে পড়ছে রিয়া চক্রবর্তী, বাড়ছে অভিনেত্রীর গ্রেপ্তারির সম্ভাবনা

সুশান্তের মৃত্যু তদন্তভার নিয়ে যেদিন থেকে উত্তাল হয়েছিল সারাদেশ, তখন থেকেই সুশান্তের মৃত্যু তদন্তের বিষয়ে আরো বেশি করে জোর দিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সম্প্রতি প্রতিদিন তারা ১০ থেকে ১২ ঘন্টা সিবিআইয়ের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে। একটানা জেরা করার পর কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার হাতে এমন কিছু তথ্য উঠে এসেছে যার ভিত্তিতে অদূর ভবিষ্যতে রিয়া চক্রবর্তী কে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সুশান্তকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে ভারতীয় সংবিধানের ৩০৬ ধারায় অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতার হতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা জানতে পেরেছেন যে, রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে থাকতে শুরু করার পরেই সুশান্তের মানসিক অবসাদ আরো বেশি করে শুরু হয়। সুশান্তের দিদি শ্রেয়া জানিয়েছেন যে, সুশান্ত অনেক আগে থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। কিন্তু সেই মানসিক অবসাদ আরো বেশী বাড়তে থাকে রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে সম্পর্কে আসার পর থেকে।রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী সুশান্তকে অবসাদমুক্ত রাখার জন্য যথাযথ ওষুধের পরিবর্তে মাদকাসক্ত করে তুলেছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে।

সূত্র অনুযায়ী, রিয়া নাকি তার ভাই সৌভিক কে দিয়ে নিজের বাড়িতে সব সময় যথাযথ পরিমাণে মাদকদ্রব্য সঞ্চিত করে রাখতেন যাতে সুশান্তর কোন অসুবিধে না হয়। প্রতিনিয়ত মাদকদ্রব্য হাতের কাছে পাবার ফলে ধীরে ধীরে প্রয়াত অভিনেতা মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন। অভিনেতার পরিবার এই মাদক আসক্ত হওয়ার ঘটনা জানতে পারার পর থেকেই সুশান্তকে বারবার রিয়াকে ছেড়ে দেওয়ার পরামর্শ দেয়। কিন্তু ততদিনে হয়তো অনেক তাই দেরি হয়ে যায়। প্রেমিকার থেকে দূরে থাকা তখন সুশান্তের কাছে প্রায় অসম্ভব হয়ে গেছে।

যেহেতু সুশান্তের পরিবারের মানুষেরা সুশান্তকে রিয়াকে ছেড়ে দিতে পরামর্শ দিয়েছিলেন, সেই কারণেই আস্তে আস্তে সুশান্ত এবং রিয়ার সঙ্গে সুশান্তের পরিবারের একটি দূরত্ব তৈরি হয়ে যায়। পরিবারের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হবে হয়ে যাবার পর আরও বেশি হতাশাগ্রস্ত হয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন সুশান্ত, এমনটাই জাতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। সিবিআইয়ের জেরার মুখে পড়ে সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার জানিয়েছেন যে রিয়া এবং সুশান্ত এক সঙ্গে বসে মদ পান করতেন। তাদের সাথে মাঝে মাঝে স্যামুয়েল এবং সৌভিক যোগ দিত।

এদিকে সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে রিয়া চক্রবর্তী পাশে দাঁড়িয়েছেন বলিউডের একাংশ। ইতিমধ্যেই বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা বালান এবং তাপসী পান্নু রিয়া চক্রবর্তীর পাশে দাঁড়িয়েছেন।তাদের মতে, কোন কিছু প্রমাণ হবার আগেই এভাবে রিয়া চক্রবর্তী কে দোষারোপ করা উচিত নয়। অন্যদিকে শ্রুতিমধুর আইনজীবী স্ত্রী নাকি সুশান্ত ও রিয়ার এই কাহিনী নিয়ে একটি নতুন সিনেমা বানাতে চলেছে যার নাম “ন্যায়”। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন দিলীপ গুলাটির। শ্রেয়া শুক্লা এবং জুবিন কে খানকে দেখা যাবে রিয়া এবং সুশান্তের ভূমিকায়।