হু হু করে বাড়ছে তাপমাত্রা, অস্বস্তিকর পরিবেশ, বৃষ্টি নিয়ে যা বললো আবহাওয়া দপ্তর

ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ ভাগ থেকেই ঋতু পরিবর্তনের আমেজ বেশ টের পাচ্ছে বাঙালি। সকালের দিকে হালকা কুয়াশায় ঢাকা থাকছে শহর। বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে রোদের দাপটে উধাও সেই কুয়াশা। কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ইতিমধ্যেই ৩৬ ডিগ্রী সেলসিয়াসের আশেপাশে পৌঁছে গিয়েছে। আবহাওয়া দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.১ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রার পারদ ঊর্ধ্বমুখী থাকবে বলেই জানাচ্ছে আলিপুর। তবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনাও কিন্তু উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। দুই বাংলার উপর দিয়ে এখন শুষ্ক এবং উষ্ণ বাতাস বয়ে যাচ্ছে। এই বাতাসের দরুনই উভয় বঙ্গের তাপমাত্রার পারদ উপরের দিকে উঠছে। আগামী কয়েকদিন কলকাতার তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকবে বলেই জানাচ্ছে আলিপুর।

মার্চের ১ ও ২ তারিখ নাগাদ কলকাতার আকাশ মেঘলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ওই সময় কালীন উত্তর-পশ্চিমের শুষ্ক বাতাস দুর্বল হয়ে পড়বে এবং তার সঙ্গেই সমুদ্রের উপর দিয়ে আগত জলীয়বাষ্প পূর্ণ বাতাস বঙ্গে প্রবেশ করবে। যার ফলে উত্তরবঙ্গে দার্জিলিং এবং কালিম্পংয়ে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশ থেকে জলীয় বাষ্পপূর্ণ একটি ঘূর্ণবাত দক্ষিণবঙ্গে প্রবেশ করছে।

রবিবার কলকাতা শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.১ ডিগ্রী, সেলসিয়াস স্বাভাবিকের থেকে যা প্রায় ৫ ডিগ্রি বেশি। এ দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে যা ৩ ডিগ্রী বেশি। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ এদিন সর্বোচ্চ ৯৪ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ২৭ শতাংশ রেকর্ড করা হয়েছে।