ভাড়ার তালিকা সহ বিভিন্ন নিয়ম জারি রেলের, এইসব নিয়ম মানলেই উঠতে পারবেন ট্রেনে

করোনা মোকাবিলার জন্য গত দেশ জুড়ে লোডাউন চলছে। আর এই লকডাউনের জেরে ভিন রাজ্যে আটকে রয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিক, তীর্থযাত্রী, পর্যটক, পড়ুয়া সহ অনেকেই। তাঁদের বাড়ি ফেরানোর জন্য কিছু শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালানো হচ্ছে। আবার মঙ্গলবার থেকেই চালু হচ্ছে কিছু প্যাসেঞ্জার ট্রেন। মোট ৩০ টি ট্রেন চালানো হবে।

ট্রেনগুলি দিল্লি থেকে হাওড়া, ডিব্রুগড়, আগরতলা, পটনা, বিলাসপুর, রাঁচী, ভুবনেশ্বর, সেকেন্দরাবাদ, বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, তিরুঅনন্তপুরম, মডগাঁও, মুম্বই সেন্ট্রাল, আমদাবাদ ও জম্মু-তাওয়াই পর্যন্ত চলবে। যাত্রাপথে হাতেগোনা কয়েকটি স্টেশনে দাঁড়াবে ট্রেন। প্যাসেঞ্জার ট্রেনের জন্য টিকিট আইআরসিটিসির ওয়েবসাইট থেকেই আপনাকে টিকিট বুক করতে হবে। নিজস্ব প্রোফাইল থেকে টিকিট বুক করতে হবে। রেলের রিজার্ভেশন কাউন্টার থেকে টিকিট পাওয়া যাবে না।

সোমবার বিকেলে ৪ টা থেকে বুকিং শুরু হয়েছে। আইআরসিটিসি এর ওয়েবসাইট https://www.irctc.co.in/ এ গিয়ে টিকিট বুক করতে পারবেন। ট্রেনের কামরার মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা ভেবে থ্রি-টিয়ার কামরাগুলির মাঝের আসনটি খোলা হবে না। মুখে ঢাকা দেওয়া বাধ্যতামূলক। ট্রেনে ওঠার আগে প্রত্যেক যাত্রীকেই স্ক্রিনিংয়ের মধ্য দিতে যেতে হবে।

জ্বর বা কোনও রকম অসুস্থতার লক্ষণ না থাকলে ট্রেনে ওঠার ছাড়পত্র দেওয়া হবে। ট্রেনগুলির ভাড়া হবে রাজধানী এক্সপ্রেসের মতোই, কারণ ওই ট্রেনগুলি পুরোটাই এসি কামরা। এর ফলে তার ভাড়া হবে প্রিমিয়াম ক্যাটেগরির। স্টেশনে ঢোকার জন্য বৈধ কনফার্মড টিকিট লাগবে, না হলে কেউ স্টেশনে প্রবেশ করতে পারবেন না। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনও চালু থাকবে। সেই সঙ্গে প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালু হচ্ছে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন