BREAKING: গুলিবর্ষণ অব্যাহত, কেনিয়ায় মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে জঙ্গি হানা

প্রতীক ছবি

কেনিয়ার লামু- কাউন্টিতে মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালানোর কথা অকপটে স্বীকার করে নিল আল শবাব জঙ্গিগোষ্ঠী। আমেরিকা ও কেনিয়ার যৌথ সেনার আস্তানা এই ঘাঁটি। এখনও জঙ্গি ও যৌথ সেনাবাহিনীর মধ্যে গুলির লড়াই অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে, কোনো হতাহতের খবর এখনো জানা যায়নি। ইরুঙ্গু মাচিয়ারা, লামু কাউন্টির কমিশনার এই হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে ঘোষণা করেছেন, ‘‘একটি হামলা হয়েছে। তবে জঙ্গিদের যোগ্য জবাব দেওয়া হচ্ছে।’’

জঙ্গি সংগঠন আল শবাবের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মুজাহিদিন যোদ্ধারা শত্রুপক্ষ আমেরিকার সেনা ঘাঁটিতে প্রবেশ করেছে এবং ভাবে হামলা চালাতে সফল হয়েছে। ওই সেনা ঘাঁটির একাংশ তারা দখল করে রেখেছে।’’ আমেরিকা এবং কেনিয়ার সেনাদের মধ্যে অনেককেই তাদের জঙ্গিরা আহত করতে পেরেছে বলেও দাবি করেছে আল শবাব।

প্রধান ঘাঁটি মূলত সোমালিয়ায়। কিন্তু কয়েক বছর আগে সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসু থেকে তাদের উৎখাত করার পর থেকেই সশস্ত্র জঙ্গি হানার সংখ্যা বাড়িয়েছে এই জঙ্গিরা। তাদের উৎখাত করার সময় সোমালিয়ার প্রতিবেশী দেশ কেনিয়াও আল শবাব জঙ্গিদের দমনের জন্য প্রচুর সেনা পাঠিয়েছিল। সেই ঘটনার প্রতিশোধ স্বরুপ কেনিয়াতেও একাধিক হামলা চালিয়েছে আল শবাব জঙ্গিরা।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন


প্রায় একবছর আগে কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ‘রিভারসাইড কমপ্লেক্স’ নামে একটি ভবনে আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছিল আল শাবাব জঙ্গি। ওই হামলায় প্রাণ হারান ২১ জন। এর পর আবার মাত্র তিন দিন আগেই একটি যাত্রীবাহী বাসে হামলা চালিয়েছে তারা। এই হামলায় তিন জন যাত্রী‌ মারা যান। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবার সেনা ছাউনিতে আক্রমণ চালালো আল শবাব জঙ্গিগোষ্ঠী।