মুসলিম পরিবারে হিন্দুদের নিয়মে সাধ, ট্রোলের শিকার তানিশকের বিজ্ঞাপন

মুসলিম পরিবারে হিন্দু রীতি নীতি মেনে সন্তান জন্ম গ্রহণের আগে সাধ দেওয়া নিয়ে একটি বিজ্ঞাপন বানিয়েছিল বিশিষ্ট গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থা তানিশক। তবে সেই বিজ্ঞাপন প্রকাশ্যে আসতেই নেটিজেনদের বিতর্কের মুখে পড়লো গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থাটি। নেটিজেনদের একাংশের বক্তব্য, এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে “লাভ জিহাদ” এর প্রতি সমর্থন দেখানো হচ্ছে। তাই অবিলম্বে বিজ্ঞাপন বন্ধ করার দাবি জানাতে থাকেন তারা।

নেটিজেনের কোপের মুখে পড়ে অবশেষে সেই বিজ্ঞাপন তুলে নিতে বাধ্য হলো তানিশক। উল্লেখ্য, গত ৯ই অক্টোবর গয়নার বিজ্ঞাপন দিতে গিয়ে এক নতুন বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে তানিশক। গয়নার বিজ্ঞাপনের সঙ্গে সঙ্গে সেখানে “একাতবাম” তথা একতার বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল তানিশক। তাই একটি মুসলিম পরিবারের তরফ থেকে দক্ষিণ ভারতীয় রীতিনীতি মেনে বৌমার সাধভক্ষণের আয়োজন দেখানো হয়েছিল।

আর এতেই বিক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন নেটিজেনদের একাংশ। তারা এই বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে এই “লাভ জিহাদ” এর অভিযোগ তুলতে শুরু করেন। উল্লেখ্য,”লাভ জিহাদ” কথাটি আসলে গোঁড়া হিন্দুদের প্রবর্তিত। তাদের অভিযোগ, প্রেমের অন্তরালে হিন্দু ধর্মাবলম্বী মেয়েদের ফুঁসলিয়ে মুসলিম ধর্মে রূপান্তরিত করা হয়। তানিশকের বিরুদ্ধেও এই কার্যকলাপ সমর্থন করার অভিযোগ ওঠে।

সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে হ্যাশট্যাগ বয়কট তানিশকের ঝড় ওঠে। তবে তানিশকের এই বার্তাকে ইতিবাচক ভঙ্গিতে নিয়েছেন অনেকেই। বিশেষ করে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ২০২০ সালের সব থেকে সেরা বিজ্ঞাপন ছিল এই বিজ্ঞাপনটি। দুই ধর্মের মানুষের মেলবন্ধন অসাধারণ ভঙ্গিতে তুলে ধরেছে সংস্থাটি। বিতর্কের মুখে পড়ে বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করে নেওয়াতে স্বভাবতই আহত হয়েছেন তারা। তাদের বক্তব্য,কতগুলি ট্রল এবং ধর্মান্ধতার সামনে মাথা নত করতে বাধ্য হলো তানিশক, এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।