জেগে উঠলো মাউন্ট এটনা, নির্গত হচ্ছে লাভা, বন্ধ বিমান পরিষেবা

আরো একবার জেগে উঠলো ইউরোপ তথা সারা বিশ্বের অন্যতম সক্রিয় আগ্নেয়গিরি মাউন্ট এটনা। মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে অগ্নুৎপাত। তবে অগ্ন্যুৎপাতের ফলে আশে পাশের গ্রামে এখনো পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে। বুধবার সিসিলিতে অগ্নুৎপাত শুরু হয়েছে। এই প্রসঙ্গে ইতালিয়ান ইনস্টিটিউট অফ জিও ফিজিক্স এন্ড ভলক্যানোলজিস্ট প্রধান জানিয়েছেন যে, এই অগ্নুৎপাত সেরকম কোনো মারাত্মক অগ্ন্যুৎপাত নয়।

এর থেকেও খারাপ অভিজ্ঞতা রয়েছে আমাদের। অগ্নুৎপাত শুরু হবার ঘন্টা খানেক পরেই পাহাড়ের মাথার উপর লাভা জমে গিয়েছিল। সন্ধে হবার সাথে সাথে সেটা আস্তে আস্তে নিচের দিকে গড়িয়ে নামতে শুরু করে দেয়।

প্রায় এক কিলোমিটার অংশজুড়ে বাতাসে উড়তে থাকে ছাই। সেই দেশের আপৎকালীন বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে যে, সমস্ত ঘটনার ওপর তারা নজর রাখছেন। মাউন্টেন এটনার পাদদেশে রয়েছে তিনটি গ্রাম। সেই দিনটি গ্রামের ওপর কড়া নজর রেখেছে প্রশাসন। সেখান থেকেই গ্রামবাসীদের আস্তে আস্তে সরিয়ে নিয়ে যাবার ব্যবস্থা করেছেন তারা। ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে কাটানিয়া আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর।

ইউরোপের সব থেকে দীর্ঘ আগ্নেয়গিরি হলো মাউন্ট এটনা। বিগত পাঁচ লক্ষ বছর ধরে একই ভাবে সক্রিয় রয়েছে এই আগ্নেয়গিরি। এর আগেও জানুয়ারি মাসে অগ্নুৎপাত হবার ঘটনা শোনা যায় এই আগ্নেয়গিরি থেকে।