কি Deal হয়েছে বিজেপির সাথে, এবার সর্বসমক্ষে ফাঁস করলেন শুভেন্দু, ফাঁটালেন বোমা

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে বঙ্গে গেরুয়া পতাকা উত্তোলনের মরিয়া প্রচেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় শাসক দল। ভোটযুদ্ধে বিজেপি’র জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন তৃণমূলের এককালীন হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে দলবদলের মরসুমে শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপি দলে যোগদান করা নিয়ে রাজ্য রাজনীতি এখনো উত্তাল।

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের এককালীন ঘনিষ্ঠ নেতা শুভেন্দু এখন তৃণমূলের কাছে রীতিমতো “বিশ্বাসঘাতক” এ পর্যবসিত হয়েছেন। এমতাবস্থায় তৃণমূল দল ছেড়ে তার বিজেপি দলে আসার উদ্দেশ্য স্পষ্ট করলেন শুভেন্দু অধিকারী। উল্লেখ্য শুভেন্দু অধিকারীর দলবদল প্রসঙ্গে তৃণমূলের বর্ষিয়ান নেতা সৌগত রায় বলেছিলেন, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বিজেপির ডিল হয়েছে। আজ কাঁথিতে আয়োজিত তার জবাব দিলেন শুভেন্দু অধিকারী।

উল্লেখ্য নতুন বছরের প্রথম দিনেই শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দু অধিকারী দাদার নেতৃত্বে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি দলে যোগদান করলেন। সৌমেন্দু অধিকারীর ছাড়াও আরও ১৬জন কাউন্সিলর এবং অন্তত পাঁচ হাজার তৃণমূল কর্মীকে বিজেপির ছত্রছায়ায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। পাশাপাশি “বিজেপির সঙ্গে ডিল” প্রসঙ্গে তাঁর দাবি, প্রতিবছর স্কুল সার্ভিস, টেট পরীক্ষার আয়োজন করে বাংলার ছেলেমেয়েদের মাসে অন্তত একটি ভদ্রস্থ বেতনের চাকরি দেওয়া হয়েছে তার।

তৃণমূল সরকারের প্রতি তার অভিযোগ, এই সরকারের আমলে বাংলার যোগ্য ছেলে মেয়েরা ২-৪ হাজার টাকা বেতনের ঠিকাদারির কাজ করছেন। কিন্তু বিজেপি চায় বাংলার যোগ্য প্রার্থীদের জন্য প্রতিবছর স্কুল সার্ভিসের পরীক্ষা হোক। পাশাপাশি, তৃণমূল সরকারের “ঢপের চপ” স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের পরিবর্তে কেন্দ্রীয় সরকারের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালু করতে চায় বিজেপি। তার সঙ্গে বাংলার ৭৩ লক্ষ কৃষকের জন্য বছরে ছয় হাজার টাকা সরকারি সাহায্যের ডিল হয়েছে তার বিজেপির সঙ্গে। বিজেপির হাত ধরেই বাংলায় “সুশাসন” প্রতিষ্ঠার ডিল করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।