জিতেছি আমরাও, কিন্তু বি’রো’ধী’রা আ’ক্রা’ন্ত হননি, বাংলা ও আসামের তফাৎ বোঝালেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা

একুশের নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পরপরই রাজ্য জুড়ে বিক্ষিপ্ত অশান্তির খবর পাওয়া যাচ্ছে। রাজ্যে হিংসাত্মক ঘটনা ঘটানোর অভিযোগ উঠছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা নাকি বিজেপি কর্মীদের আক্রমণ করছেন। তাদের খুন করা হচ্ছে! বিজেপি পার্টি অফিস জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে! বিজেপি কর্মী সমর্থকদের দোকানপাট ভেঙে ফেলা হচ্ছে।

এমনই সব মারাত্মক অভিযোগ উঠছে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এবার এই প্রসঙ্গে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করলেন অসমের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে তার কটাক্ষ, ২৪ ঘন্টা হয়ে গিয়েছে অসমে বিজেপি জয়লাভ করেছে। তবে এখানে একজন কংগ্রেস কর্মী সমর্থককে স্পর্শ করা তো দূরের কথা কটাক্ষ পর্যন্ত করা হয়নি!

তিনি তার টুইট বার্তায় আরও লিখেছেন, বাংলার দিদি-দাদারা সেই রাজ্যে সন্ত্রাসের আবহ তৈরি করছেন! বিজেপি কর্মীদের খুন করা হচ্ছে। সভ্য সমাজের পার্থক্য টা গোটা দুনিয়া দেখছে। এমনই মন্তব্য করেছেন অসমের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী।

তবে বিজেপির এই অভিযোগ কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানতে নারাজ। তিনি এই অভিযোগের পাল্টা শীতলকুচি কান্ডের কথা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন। তার দাবি, বিজেপি বহু পুরনো ছবি আপলোড করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই ছবি এবং ভিডিওগুলি আজকের নয়। বহু পুরনো ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে ভ্রান্তি ছড়াতে চাইছে বিজেপি। এমনই মন্তব্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।