অবিশ্বাস্য আবিষ্কার, অক্ষত অবস্থায় ২ হাজার বছর পুরানো রথের হদিশ পেলো বিজ্ঞানীরা

প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের গবেষণা চালানোর জন্য এক বড়োসড়ো সাফল্য লাভ করলেন ইটালির প্রত্নতত্ত্ববিদরা। শনিবার পম্পেইয়ে নাপেলসের কাছে খনন কার্য চালানোর সময় একটি অক্ষত রথ আবিষ্কার করেছেন তারা। এই রথটি অন্তত দুই হাজার বছরের পুরনো বলে জানানো হয়েছে। রথটি সম্পূর্ণভাবে কাঠ ও লোহা দ্বারা নির্মিত এবং ব্রোঞ্জ দ্বারা সজ্জিত। প্রত্নতত্ত্ববিদদের কাছেই আবিষ্কার একটি অত্যন্ত আশ্চর্য আবিষ্কার হিসেবেই স্বীকৃতি পেয়েছে।

Parque Arqueológico de Pompeya

প্রসঙ্গত ইতালির প্রাচীন শহর পম্পেইয়ের উত্তরেই সাম্প্রতিক কালে একটি বসতির ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গিয়েছিল। সেখানেই তিনটি ঘোড়ার দেহাবশেষও মিলেছিল। নতুন আবিষ্কৃত রথটিও সেখান থেকেই উদ্ধার করা হয়েছে। পম্পেইয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ এই রথের আবিষ্কারকে একটি “ব্যতিক্রমী আবিষ্কার” বলেই চিহ্নিত করেছেন। কারণ ইটালি থেকে এ পর্যন্ত এমন রথ আগে কখনো আবিষ্কার করা যায়নি।

Parque Arqueológico de Pompeya

কিভাবে এই রথ এ পর্যন্ত সকলের অলক্ষ্যে থেকে গেল, সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তার জবাব অবশ্য দিয়েছেন ইতিহাস বিজ্ঞানীরা। তারা জানাচ্ছেন, ৭৯ এডি-তে ভিসুভিয়াসের অগ্নুৎপাতের কারণে গোটা পম্পেই শহর ধ্বংস হয়ে যায়। মাটির তলায় চাপা পড়ে যায় সম্পূর্ণ শহর। এই রথটিও এতদিন মাটির তলায় চাপা পড়ে থেকেছে। তাই চোরেদের দৃষ্টিও এড়াতে সক্ষম হয়েছে।

এই রথের চাকাগুলি কাঠের তৈরি। আশ্চর্যের বিষয় দুই হাজার বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরেও রথের চাকা এখনো অক্ষত। উল্লেখ্য এই এলাকা থেকেই সম্প্রতি একটি নর কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। তাই প্রত্নতত্ত্ববিদদের আশা এই এলাকায় খননকার্য চালালে তৎকালীন নগর সমাজের বহুমূল্যবান ঐতিহাসিক নিদর্শন মিলতে পারে।