আজ হো’ক বা কা’ল, বাং’লা’য় প’রি’ব’র্ত’ন হবেই: দিলীপ ঘোষ

একুশের বিধানসভা নির্বাচনী লড়াইয়ে বিরোধী তৃণমূল শিবিরের কাছে পরাজিত বিজেপি। একুশের লড়াইয়ে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে পশ্চিমবঙ্গের সরকার গঠনের স্বপ্ন বিজেপির অধরাই থেকে গেল। এমন অপ্রত্যাশিত হারের সম্মুখীন হয়েও অবশ্য এখনই হাল ছাড়তে নারাজ বঙ্গ বিজেপি। BJP এর রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ নিশ্চিত, আজ হোক বা কাল বাংলায় পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী।

একুশে এমন শোচনীয় পরাজয়ের পরেও আশায় বুক বাঁধছে তৃণমূল। বিশেষত বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ আশাবাদী, বাংলায় আজ না হোক কাল পরিবর্তন আসবেই। তিনি এদিন আরো বলেছেন, পালিয়ে যাওয়ার রাজনীতি তিনি কখনো করেননি। আজ পর্যন্ত সব ক্ষেত্রেই রেকর্ড জিত হয়েছে। বাস্তবের মাটিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করেছেন তিনি এবং বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা।

প্রসঙ্গত এদিন বিজেপির এমন অপ্রত্যাশিত হার এর পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপির রাজ্য সভাপতি ভুল প্রার্থী বাছাই প্রসঙ্গটিকে দায়ী করেছেন। তিনি এদিন বলেন, বিজেপি কর্মীদের সততা নিয়ে কোন প্রশ্ন নেই। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বদের ভূমিকা নিয়েও কোনো প্রশ্ন নেই। তবে ভুল প্রার্থী বাছাই করা হয়েছে। তৃণমূল থেকে প্রার্থীদের নিয়ে আসা হয়েছে। “বেড়ালকে বাঘ বানানো”র কারণেই BJP-র এমন হার হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

প্রসঙ্গত ইতিপূর্বে বিজেপির এমন পরাজয় প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ সংবাদমাধ্যমে সামনে বলেছিলেন, দলের এই মুহূর্তে আত্মসমীক্ষা প্রয়োজন রয়েছে। তিনি আরো বলেন কংগ্রেস এবং সিপিএমের ভোট পেয়েছে তৃণমূল। তিনি বলেন, বাংলায় বিজেপির যোগ্য মুখ ছিল না। বাংলার বর্তমান পরিস্থিতিও রাজ্যবাসীকে বোঝাতে অসমর্থ হয়েছে বিজেপি। তাই এমন অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটলো।