বিজেপিতে যোগদান করেও সোশ্যাল মিডিয়ায় টিএমসি “প্রীতি”, বনশ্রীকে বিদ্ধ হতে হলো সমালোচনায়

কাঁথি উত্তরের বিধায়ক বনশ্রী মাইতি বর্তমানে নিজের শিবির ছেড়ে যোগ দিয়েছেন বিজেপি শিবিরে। একসময় তৃণমূল থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু এবার রাজ্য কে বাঁচাতেই বিজেপির উপর ভরসা রাখলেন তিনি। দলবদল এর পালাতেও তিনিও তৃণমূল থেকে বিজিবি নাম লিখিয়েছেন ঠিকই। তবে তার ভেরিফাইড টুইটার একাউন্ট বলছে অন্য কথা।হয়তো তিনি তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসেছেন ঠিকই কিন্তু তার টুইটার এর কভার পিক ঘাসফুলের পরিবর্তনে এখনো জায়গা করতে পারেনি পদ্ম ফুল। আর সেই কারণেই এখন তাকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে দৈনিক। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসেও কেন তার তৃণমূল প্রীতি এই নিয়েই প্রশ্ন সবার মুখে।

স্বাভাবিকভাবেই শুভেন্দু অধিকারী তার পথ প্রদর্শক, যখন তিনি তৃণমূলে ছিল এই বনশ্রী মাইতিও তৃণমূল বিধায়ক ছিলেন কিন্তু এখন দাদা দল পরিবর্তন করে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন। আর তার শিষ্য হিসেবে গত ডিসেম্বরেই তিনিও গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই শাসক দলের বিভিন্ন কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের। কিন্তু তার টুইটার একাউন্ট লক্ষ করা গেলে দেখা যাবে এখনো তৃণমূল প্রীতি রয়েছে তার মধ্যে।কারণ তার ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টের কভার পিকে দেখা যাচ্ছে অন্য বার্তা, “বিজেপি থেকে নিজেকে সুরক্ষিত করুন”।

এই ধরনের বার্তা নিয়েই তাকে সম্মুখীন হতে হচ্ছে বিভিন্ন সমালোচনার। তবে দল ছাড়ার পরে সেই একাউন্ট অবশ্য ব্যবহার করা হয়নি আর। কিন্তু সত্যিই কি এটা ভুলবশত? না এর মধ্যে রয়েছে অন্য কোনো মতলব? তবে এই নিয়ে বনশ্রীতে জানিয়েছেন আসলে তিনি টুইটার আকাউন্ট হ্যান্ডেল করেন না। যে হ্যান্ডেল করেন তাকে তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন টুইটার একাউন্ট বন্ধ করার জন্য। তবে হয়তো ভুলবশত সেটা এখনো হয়ে ওঠেনি।