মিললো ধ্বংসাবশেষ, ইন্দোনেশিয়ার বিমানে থাকা সকল যাত্রীদের মারা যাওয়ার আশঙ্কা!

ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তার Soekarno-Hatta বিমানবন্দর থেকে উড়ান শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই কি দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিল SJY 182 নামে শ্রীউইজায়া এয়ার ফ্লাইটের ওই অভিশপ্ত যাত্রীবাহী বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি? বিমান কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে শেষমেষ তেমনটাই আভাস দেওয়া হচ্ছে। ত্রিশূলা উপকূলীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর জাহাজ তল্লাশি চালাতে গিয়ে যাত্রীদের দেহাবশেষ এবং বিমানের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ওই উড়োজাহাজটি এদিন ছয় জন শিশুসহ ৫৬ জন যাত্রী নিয়ে জাকার্তা থেকে পন্টিয়ানাকের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল। এমনিতে আকাশপথে এই পথ পাড়ি দিতে ৯০ মিনিট সময় লাগে। তবে এদিন জাকার্তা থেকে উড়ান শুরু করার ঠিক চার মিনিট পরেই ছয় জন ক্রু মেম্বার এবং ৫৬ জন যাত্রী সহ বিমানটি আকাশ পথে নিখোঁজ হয়ে যায়। এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, যে সময় এই ঘটনাটি ঘটেছে সেই সময় উড়োজাহাজটি ভূপৃষ্ঠ থেকে অন্তত দশ হাজার ফুট উপরে উড়ছিল।

সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, উড়ান শুরু করার কিছু মুহূর্ত পরেই কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে ঐ বিমানের যোগাযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পূর্বে বিমানটি এক লাফে অন্তত তিন হাজার ফুট নিচে নেমে গিয়েছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছিল সংশ্লিষ্ট সংস্থা। এই ঘটনা ঘটার পরেই ওই বিমানের খোঁজে জোর তল্লাশি শুরু করা হয়। শেষমেষ সমুদ্রে ওই বিমান এর ধ্বংসাবশেষ এবং যাত্রীদের দেহ উদ্ধার করেছে প্রতিরক্ষা বাহিনীর জাহাজ। বিমান যাত্রীদের মধ্যে কেউই প্রায় বেঁচে নেই বলেই মনে করা হচ্ছে।