আর মাত্র একদিন, ধূমকেতুর আলোতে জ্বলজ্বল করবে আকাশ, মহাজাগতিক দৃশের সাক্ষী থকাবে বিশ্ব

চন্দ্রগ্রহণ, সূর্যগ্রহণ, এবার এরপরেই দেখা যাবে ধূমকেতুও। এই ২০২০ যে কি কি রঙ দেখাবে সেটা বোঝা মুশকিল। কারণ এবার মানুষ একেবারে এইসব নতুন নতুন চমকে তিতিবিরক্ত। তবে এবার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছে, যেটা হয়তো কস্মিনকালেও সম্ভব ছিল না, এবার সেটাই মানব জাতি দেখতে চলেছে। নিও ওয়াস নামে এই ধূমকেতু এবার মানুষ দেখতে পারবে খালি চোখেই।

আগামী বুধবার, ১৫জুলাই এর পরে এই ধূমকেতুর দর্শন পাওয়া যাবে। এই ধূমকেতু দেখা যাবে পশ্চিম আকাশে সড়তে, তাই সূর্যাস্তের পরেই উত্তর পশ্চিম আকাশে দেখা এই ধূমকেতু। আর এবারে ধূমকেতুর বিশেষত্ব হল, খালি চোখেই দেখা যাবে একে। ২২ জুলাই এই ধূমকেতু কে দেখা যাবে খালি চোখেই, এই ধূমকেতু ১০ কোটি কিমি দূরে দিয়ে যাবে। এই ধূমকেতুকে খালি চোখে দেখা যাবে কারণ, এর ঔজ্জ্বল্য থাকবে সব থেকে বেশী।

১৪ জুলাই এর সূর্যাস্তের পরেই এই ধুমকেতু দেখা যাবে, ২০ মিনিটের জন্য,এই ভূমিকম্প এরপরে আবার ৬৮০০ বছর পরে দেখা যাবে। তবে এই ধুমকেতু খালি চোখে দেখা পাওয়ার কথা বলা হচ্ছে ঠিকই, তবে ভারতে এখন বর্ষাকাল, আর সেই কারণেই আকাশ থাকবে মেঘাচ্ছন্ন, যার ফলে দেখতে পাওয়া যাবে কিনা, সেটা নিয়ে আশঙ্কা রয়েই গেল।