Signature: আ’প’না’র সই করার ধ’র’ণ বলে দিতে পারে কে’ম’ন ব্য’ক্তি’ত্বে’র অ’ধি’কা’রী আ’প’নি! জেনে নিন

প্রত্যেকটি ব্যক্তির নিজস্ব সই করার ধরন থাকে। পেন অথবা পেন্সিল দিয়ে যেমন করেই আপনি সই করুন না কেন, এইসব আপনার পরিচয় এবং ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে জানিয়ে দিতে পারে খুব সহজেই। আসুন জেনে নেওয়া যাক আপনার সই আপনার সম্পর্কে ঠিকই কথা বলতে চায়। যাদের সইয়ের প্রথম অক্ষরটি একটু বড় থাকে এবং তার পরে যারা পুরো নামটি লেখেন তারা আশ্চর্য প্রতিভাশালী বলে বিবেচিত হয় সকলের কাছে। এছাড়া অনেকেই আছেন যারা সইয়ের নিচে আন্ডার লাইন করে থাকেন, তারা খুবই শক্তিশালী এবং দৃঢ় সম্পন্ন হয় বলেই মনে করা হয়।

আবার যাদের শরীর খুব ছোট তারা অত্যন্ত স্বার্থপর এবং অন্যকে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করতে থাকেন সবসময়, এমনটাই মনে করা হয়। অন্যদিকে সইয়ের আকার যদি অক্ষরের থেকে বড় হয় তাহলে সেই ব্যক্তির শাসন করার উচ্চাকাঙ্ক্ষা থাকে ভীষণভাবে। যে সমস্ত লোকেরা তাদের সেই প্রায় পরিবর্তন করে, তারা ভীষণ ভাবে পরিবর্তনশীল মনষ্ক হন। তারা নিজেদের সংগঠিত করে রাখতে ভালোবাসেন। যাদের শরীরের শেষ ভাগ উপরের দিকে উঠে যায়, তারা খুব উচ্চাভিলাষী হন। যেকোনো পরিস্থিতিতে নিজের লক্ষ্য পূরণ করার চেষ্টা করেন তারা। আবার যাদের সই কিছুটা বেঁকে যায় তারা নিজের কাজের জন্য গোপনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে ভালোবাসেন।

প্রথম অক্ষর যদি বড় হয়, বাকি অক্ষরগুলি যদি সমান হয়, তাহলে সেই ব্যক্তির খুব আত্মমর্যাদাবোধ থাকে। একই সময়ে যদি প্রথম অক্ষরটি বড় হয় এবং শেষ বর্ণটি খুব ছোট হয়, তাহলে মনে করা হয় যে সেই সমস্ত ব্যক্তিরা খুব আগ্রহের সঙ্গে কোন কাজ শুরু করলেও সেই কাজ শেষ করার জন্য এতটাই ব্যস্ত হয়ে পড়েন যে ঠিকমতো শেষ করতে পারেন না সেই কাজ। এইরকম ব্যক্তিরা কল্পনার জগতে থাকতে ভালোবাসেন।

যাদের ওপর থেকে নিচের দিকে নেমে যায় তারা কথায় কথায় হতাশ হয়ে যান। আবার সইয়ের নিচের লাইন বরাবর যদি একটি বিন্দু কেউ রাখেন তারা দৃঢ় বিশ্বাস সম্পন্ন হন। সরল লাইনে যারা সই করেন তারা নিরপেক্ষ, সৎ এবং উদার প্রকৃতির হন। এই ধরনের লোকেরা যে কোন কথা খুব সহজে বলে ফেলতে ভালোবাসেন। যাদের সাক্ষর খুব বড় হয় তারা ভিষনভাবে আত্মবিশ্বাসী হোন।