কোনো দরকারি কাজে যাওয়ার আগে এসব জিনিস দেখলে তা শুভ যোগের ইঙ্গিত দেয়

জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী, কোনো কাজে যাওয়ার আগে বিশেষ বিশেষ কোনো বস্তু অথবা দৃশ্য চোখে পড়লে যাত্রা পথ শুভ হবে কিংবা কার্যসিদ্ধি হতে বাধ্য। জ্যোতিষ শাস্ত্রে তাই এ রকমই বেশকিছু দৃশ্য এবং বস্তুকে শুভ বলে ধরা হয়। “খনার বচন” অনুযায়ী যেমন যাত্রা শুরু করার আগে হাঁচি অশুভ এবং টিকটিকির ডাক শুভ বলে মনে করা হয়, তেমনি জ্যোতিষ শাস্ত্রেও বেশ কিছু বিষয়ের উল্লেখ আছে যেগুলিকে যাত্রা শুভ হওয়ার লক্ষণ হিসেবে ধরা হয়।

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, যাত্রা শুরু হওয়ার আগে মধু কিংবা আখের দর্শন অত্যন্ত শুভ হিসেবে ধরা হয়। এছাড়াও যাত্রা শুরু করার আগে যদি দূর থেকে কোনো আওয়াজ ভেসে আসে অথবা যাত্রাপথে কোন একাকী বৃদ্ধ, গরু কিংবা ঘোড়া নজরে আসে তাও বিশেষ শুভ বলে মনে করা হয়। এছাড়াও যাত্রা শুরু করার পূর্বে প্রতিমা, অগ্নি শিখা, স্বর্ণ, রৌপ্য এবং রত্ন দর্শনও যাত্রার উদ্দেশ্য সফল এবং মঙ্গলজনক হওয়ার ইঙ্গিত বহন করে।

যাত্রা শুরু হওয়ার আগে দূর্বা, গোবর, ওষুধ, মুগ ডাল, ফল, ঘি, দুধ, দই, মধু দর্শনে ভ্রমণের বাঁধা কেটে যায় বলে মনে করা হয়। আবার পথ চলতে চলতে যদি শাঁখ, আয়না, ব্যান্ড পার্টি, মেঘের গর্জন শোনা যায় তাও বিশেষ শুভ বলে ধরা হয়। এতে বিশেষত বিচারবিভাগীয় কাজে বিশেষ শুভ ফল পাওয়া যায়। আবার পথে চলার সময় গরুর সঙ্গে বাছুর দেখলে অথবা ছোট নগ্ন শিশু দেখলেও যাত্রা সফল হওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনা থাকে।