ওপেন বুক সিস্টেম পরীক্ষা নয়, UGC-র চিঠি পেতেই নিয়ম বদল কলকাতা বিশ্ববিদ্য়ালয়ের

প্রতীক ছবি

করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির পাশাপাশি মহামারীর ব্যাপক প্রভাব পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থায়। দীর্ঘ ছয় মাস ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি তরফ থেকে অনলাইনেই পড়ুয়াদের শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে। তবে অনেকের কাছেই স্মার্টফোন বা ইন্টারনেট পরিষেবা না থাকার দরুন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বহু পড়ুয়া। অনলাইনে শিক্ষা প্রদানের পাশাপাশি, মহামারীর জন্য কলেজের পরীক্ষা গুলিও অনলাইনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে বেশ কিছু ক্ষেত্রে পরীক্ষা নেওয়ার সময় ওপেন বুক সিস্টেম চালু করা হয়েছিল। যেখানে পরীক্ষার্থীদের বই খুলে পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। প্রশ্নপত্র প্রদানের ২৪ ঘন্টার মধ্যে উত্তর লিখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত ইমেইল আইডিতে উত্তরপত্র পাঠিয়ে দিতে হতো। তবে সম্প্রতি এই ব্যবস্থায় বদল আনলো ইউজিসি। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি চিঠি পাঠিয়ে ইউজিসির তরফ থেকে জানানো হয়েছে ওপেন বুক সিস্টেম বন্ধ করতে হবে।

পাশাপাশি, অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে ২ থেকে ৩ সময়ও বেঁধে দেওয়া হয়েছে। ইউজিসির বক্তব্য, ওপেন বুক সিস্টেমের মাধ্যমে কখনো পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে না। এই পদ্ধতিতে শুধু সেল্ফ অ্যাসেসমেন্ট সম্ভব। পাশাপাশি, ওপেন বুক সিস্টেম পরীক্ষায় ডিগ্রী পেতে অসুবিধা হতে পারে বলে জানিয়েছে ইউজিসি। তাই এবার থেকে অনলাইনে ২ থেকে ৩ ঘন্টার মধ্যেই পরীক্ষার পরিকল্পনা করেছে ইউজিসি।

শীঘ্রই ইউজিসি তরফ থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশিকা প্রকাশিত হতে চলেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এদিকে রাজ্যে অনলাইন পরীক্ষার পরিকাঠামো সম্পর্কে সন্দিহান কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিভাবে রাজ্যজুড়ে এই পরীক্ষায় ব্যবস্থা করা হবে সেই নিয়ে চিন্তিত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে গুলিও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতোই অনলাইন পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করবে বলে মনে করা হচ্ছে।