প্রাথমিকে নিয়োগ নিয়ে ফের শুনানি, ২০১৪-র টেটের উত্তরপত্র ফের একবার যাচাইয়ের নির্দেশ আদালতের

ফের বাধাপ্রাপ্ত হলো 2014 প্রাথমিক টেট পরীক্ষার মামলা। এবার ফের কলকাতা হাইকোর্টের তরফ থেকে এক নতুন নির্দেশ দেওয়া হলো, 2014 প্রাথমিক টেট পরীক্ষার উত্তর পত্র যাচাই করার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট ।এই নিয়ে শুনানি হবে আগামী মার্চ মাসে। 2014 সালের প্রাথমিক টেট পরীক্ষায় 6 টি প্রশ্ন ভুল থাকে, আর এই নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয় পরীক্ষার্থীরা। তবে এই ঘটনা নতুন নয় অনেক আগের।

এই বিষয় নিয়ে মামলা পাল্টা মামলা সবকিছুই হয় এবং তার অবসান পর্যন্ত ঘটে। যে কারণেই গত 23 ডিসেম্বর সফল পরীক্ষার্থীদের নথি পত্র যাচাই করা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। কিন্তু এই বিজ্ঞপ্তির পরেই ফের কয়েক হাজার পরীক্ষার্থী আদালতের দ্বারস্থ হয়। প্রশ্ন ভূল থাকা সত্ত্বেও এই ধরনের বিজ্ঞপ্তি মানতে নারাজ কয়েক হাজার পরীক্ষার্থী, আর সেই কারণেই ফের আদালতের দ্বারস্থ এবং মামলা দায়ের। এর পরেই গতকাল সোমবার বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের এজলাসে জানানো হয়, যখন ছয়টা প্রশ্ন ভুল ছিল , আর সেই কারণেই অনেক পরীক্ষার্থী নাম্বার পায়নি।

তাই আপাতত 23 ডিসেম্বরের বিজ্ঞপ্তি বাতিল করা হোক। কিন্তু এই শুনানির পর এই মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সিনিয়র আইনজীবী লক্ষ্মী গুপ্ত জানায়,গত 23 ডিসেম্বর এর বিজ্ঞপ্তি কেবলমাত্র উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের জন্য। এখন যারা ভুল প্রশ্নের জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন, তারা সেই নাম্বার পাওয়ার পরেও উত্তীর্ণ হবে কিনা সেটা খতিয়ে দেখা হবে। এমন ধরনের একটি রিপোর্ট পেশ করার আবেদন জানিয়েছেন তিনি আদালতের কাছে।