বাইক চোর সন্দেহে যুবককে গ্রেফতার করলো মাথাভাঙ্গা থানার পুলিশ

চোর সন্দেহে একটি বাইক সহ এক যুবককে গ্রেফতার করল মাথাভাঙ্গা ট্রাফিক পুলিশ। রবিবার মাথাভাঙ্গা শীতলকুচি সড়কে গোলকগঞ্জের কাছে নাকা চেকিংয়ের সময় ওই যুবককে আটক করে পুলিশ। তার কথার অসঙ্গতি দেখে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধৃত আজ মাথাভাঙা মহাকুমার আদালতে তোলা হবে।পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ধৃত ওই যুবকের নাম বিশ্বজিৎ বর্মন। তারা বাড়ি মাথাভাঙ্গা আরচকিয়ার ছড়া গ্রামে। জানা গেছে, মাথাভাঙার পুলিশের ট্রাফিক ওসি শাহ আলী ইমামের নেতৃত্বে রবিবার মাথাভাঙ্গা শীতলকুচি সড়কে গোলকগঞ্জ এর কাছে নাকা চেকিংয়ের সময় বিশ্বজিৎ বর্মনেরর মোটর বাইক আটকে পুলিশকর্মীরা।

পুলিশ তার বাইকের কাগজপত্র দেখতে চান। ওই যুবক মোটর বাইকের কোন প্রকার কাগজপত্র দেখাতে পারেন নি। সে পুলিশকে জানায় পরিচিত একজনের কাছ থেকে এসে মোটর বাইকটি কিনেছে। এরপর ধৃত যুবকের কথা মত ওই মোটর বাইক বিক্রিতার বাড়িতে গিয়ে অভিযান চালাতে গিয়ে দেখেন ওই ব্যক্তি সেখানে থাকেন না। পরে পুলিশ তাকে আটক জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

পরে তার কথার অসঙ্গতি দেখা গেলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। মাথাভাঙ্গায় বিভিন্ন এলাকায় টোটো, মোটর সাইকেল ইত্যাদি চুরির সঙ্গে ওই যুবকের কোন চক্র রয়েছে কিনা তা তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ বলে জানিয়েছেন। কিন্তু এক শ্রেণীর মানুষ বলছে এত কিছু চুরি হওয়ার পরেও পুলিশ কেন চোরকে পাকড়াও করতে পারছে না তা নিয়ে প্রশ্ন চিহ্ন দেখা দিয়েছে।