প্রধানমন্ত্রী বয় বন্দনা যোজনা: মহামারী কালেও বেশি সুদ দেওয়ার কথা জানাল LIC

অবসর গ্রহণের পর বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রবীণেরা ব্যাংকের ফিক্স ডিপোজিটের উপর নির্ভর করেই জীবন ধারন করে থাকেন। তবে বর্তমান করোনা পরিস্থিতি দেশের অর্থনীতিকে সম্পূর্ণভাবে টলিয়ে দিয়েছে‌। এই পরিস্থিতিতে ব্যাঙ্কগুলি রীতিমতো আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। অর্থনৈতিক স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই সুদের হার কমিয়েছে। এর ফলে প্রত্যক্ষভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন গ্রাহকেরা।

এই পরিস্থিতিতে সব থেকে লাভজনক হলো প্রধানমন্ত্রী বয় বন্দনা যোজনা অথবা পিএমভিভিওয়াই যোজনাতে বিনিয়োগ করা। অর্থনৈতিক উপদেষ্টারা এজন্য বারবার পিএমভিভিওয়াই তে বিনিয়োগ করার পরামর্শ দিচ্ছেন। সম্প্রতি, এলআইসির তরফ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, এবার থেকে প্রবীণ নাগরিকদের জন্য বার্ষিক ৭.৪০ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হবে।

এই পরিষেবা পেতে প্রবীণ নাগরিকদের licindia.in লিংকে গিয়ে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বা এলআইসি এজেন্টের মাধ্যমে এই সুবিধা নেওয়া যেতে পারে। এই প্রকল্পে একমাত্র এলআইসি গ্রাহকেরাই আবেদন করতে পারবেন। ৬০ বছরের বেশি বয়সীরা ১০ বছরের মেয়াদে এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে পারেন। বিনিয়োগের টাকার ওপর নির্ভর করে মাসে ন্যূনতম ১০০০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৯২৫০ টাকা অব্দি পেনশন পাওয়ার সুবিধা রয়েছে।

এক্ষেত্রে বিনিয়োগকারী মাসিক, ত্রৈমাসিক, ছ’মাস কিংবা এক বছর অন্তর পেনশনের অপশন সিলেক্ট করতে পারেন। উল্লেখ্য, নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে যদি বিনিয়োগকারীর মৃত্যু হয় তাহলে সম্পূর্ণ টাকা তার পরিবারকে ফেরত দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীর নমিনিকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে। তবে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগেও টাকা তোলা যাবে। সে ক্ষেত্রে মোট বিনিয়োগের ৯৮ শতাংশ টাকা ফেরত দেওয়া হবে। আগামী ৩১ মার্চ, ২০২৩ পর্যন্ত এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করা যেতে পারে।