শি’ল্প কা’র’খা’না’তেও কো’ভি’ডে’র কো’প! নতুন করে উৎ’পা’দ’ন ব’ন্ধ করছে Hero Moto Corp

আরে একবার জনজীবন ব্যাহত হতে চলেছে। আরে একবার হয়তো বেরোজগার হতে পারে বহু মানুষ। সম্প্রতি ভারতের অগ্রণী মোটরবাইক নির্মাতা সংস্থা হিরো মোটর সাময়িকভাবে তাদের উৎপাদন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মঙ্গলবার থেকে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন তারা। ২২ এপ্রিল থেকে পহেলা মেয়ে ধাপে ধাপে চার দিন বন্ধ রাখা হবে উৎপাদন। যেভাবে দেশে সংক্রমণের হার বেড়ে যাচ্ছে, তাতে করে উৎপাদন বন্ধ রাখাই শ্রেয় বলে মনে করেছেন তারা.

যদিও কেন্দ্র ইতিমধ্যেই আশ্বস্ত করেছেন যে, দেশে এক্ষুনি লকডাউন হবে না। শুধুমাত্র মানুষকে সচেতন হতে হবে। কিন্তু কর্মীদের স্বাস্থ্য নিয়ে ঝুঁকি নিতে নারাজ হিরো মোটোকর্প। এই বিষয়ে মঙ্গলবার তারা জানিয়েছেন যে, শুধুমাত্র কর্মীদের সুরক্ষা এবং কল্যাণের কথা মাথায় রেখে তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দেশের সমস্ত কারখানায় একই নিয়ম পালন করা হবে। এমনকি গ্লোবাল পার্টস সেন্টারেও কাজ বন্ধ থাকবে।

সারা দেশজুড়ে হিরো মোটোকর্পএর বৃহৎ উৎপাদন কারখানা রয়েছে। সেগুলি বছরে ১.১৬ কোটি উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন। হরিদ্বার, দারুহেরা, গুরগাঁও, নীমরানা, ভদোদরা এবং চিত্তুরে রয়েছে কারখানাগুলি। সংস্থার বার্ষিক রিপোর্ট অনুযায়ী, মার্চ ২০২০-তে ৮,৫৯৯ জন স্থায়ী কর্মী এবং ২১,০৯১ জন অস্থায়ী কর্মী রয়েছে হিরো মোটোকর্পে।

যে চারদিন উৎপাদন বন্ধ থাকবে, তাতে করে খুব একটা মোটর বাইকের চাহিদা যোগান দিতে অসুবিধা হবে না বলেই তারা মনে করেছেন। উৎপাদন বন্ধ থাকায় যেটুকু ক্ষতি হবে তা তিন মাসের মধ্যেই পুরনো হয়ে যাবে বলেই মনে করছেন সংস্থা।