কোভিড টিকার জন্য কলকাতা পুরসভা নথিভুক্ত করবে নাম, বড়ো ঘোষণা করলেন ফিরহাদ হাকিম

গত ১৬ই জানুয়ারি থেকে দেশজুড়ে গণহারে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমোদনক্রমে করোনা যোদ্ধারাই আগে করোনা প্রতিরোধী ভ্যাকসিন পাবেন। সে মতো এই রাজ্যেও ষষ্ঠ পর্যায়ে টিকাকরণ কর্মসূচি সম্পন্ন হয়েছে। আপাতত স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সঙ্গে জড়িত চিকিৎসক, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীরাই টিকা পাচ্ছেন। এরপর পুলিশ, পুর কর্মী এবং সাফাই কর্মীরা টিকা পাবেন বলে জানানো হয়েছে।

তবে সাধারণ মানুষ কবে থেকে টিকা পাবেন সে সম্পর্কে এখনো কিছু জানায়নি কেন্দ্র। রাজ্য অবশ্য এবার সাধারণ মানুষকে টিকা দেওয়ার কথা ভাবছে। কলকাতার পুরসভার প্রধান প্রশাসক তথা রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সম্প্রতি তেমনটাই আভাস দিলেন। রবিবার চেতলায় ‘‌দুয়ারে সরকার’‌ শিবিরে উপস্থিত হয়ে ফিরহাদ হাকিম জানালেন টিকা নেওয়ার জন্য এবার সাধারণ মানুষের নাম নথিভুক্ত করা হবে।

ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার থেকেই কলকাতায় তার মেয়র্‌স ক্লিনিকে সাধারণ মানুষের নাম নথিভুক্ত করার কাজ শুরু হবে। আপাতত ৫০ বছরের বেশি বয়সীরাই নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। তবে “আজকে নাম লিখিয়ে যদি মনে করেন পরশুই টিকা পেয়ে যাবেন, তাহলে কিন্তু ভুল করবেন!”, এমনটাই জানাচ্ছেন ফিরহাদ হাকিম।

এদিন তিনি বলেন, নাম নথিভুক্ত করার পর তা কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হবে।সাধারণ মানুষকে টিকা দেওয়ার কর্মসূচি আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকে শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি এও বলেছেন, যুব সম্প্রদায়কে নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই। ৫০ বছরের বেশি বয়সীরা “রিস্ক জোন” এ রয়েছেন। অতএব প্রথম দিকে তাদেরই ভ্যাকসিন নেওয়া দরকার।