IPL-এর টাইটেল স্পন্সর Dream11-এর উপর জারি নিষেধাজ্ঞা! দেশজুড়ে শোরগোল

করোনা মহামারীর কারণে টানা ৬৮ দিন কড়া লকডাউন পালনের পরেও প্রায় ছয় মাস পর আবারো ক্রিকেট নিয়ে মেতে উঠেছে দেশ। গত ১৯শে সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে আইপিএল ক্রিকেট লিগ। ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে ক্রিকেটপ্রেমীরা আইপিএলের টাইটেল স্পনসর Dream11-এ নিজেদের দল গড়েছেন এবং সেখান থেকে অর্থ উপার্জন করছেন। তবে এ বছর অন্ধপ্রদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা Dream11 এ দল গঠন করা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। কারন সে রাজ্যের সরকার অন্ধ্রপ্রদেশে Dream11 এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

সম্প্রতি, Gulte নামক একটি ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। ওয়েবসাইটের রিপোর্ট থেকে জানা গেল, সম্প্রতি অন্ধপ্রদেশে নতুন গেমিং আইন চালু করা হয়েছে। নতুন আইন অনুসারে, এবার থেকে অন্ধপ্রদেশের বাসিন্দারা Dream11 এর অ্যাপের মাধ্যমে ক্রিকেট সংক্রান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে টাকা রোজগার করতে পারবেন না। নতুন আইন অনুসারে Dream11 এর পাশাপাশি রামি, পোকারের মত টাকা রোজগারের জন্য ব্যবহৃত জনপ্রিয় গেমিং অ্যাপের ব্যবহারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এই সমস্ত অনলাইন গেমিং অ্যাপ সংস্থার তরফ থেকে অবশ্য এখনো নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত কোনো বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি। তবে, অন্ধ্রপ্রদেশের বাসিন্দারা যখনই অ্যাপগুলি খোলার চেষ্টা করছেন, তখনই স্ক্রিনে ভেসে উঠছে নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত বার্তা। উল্লেখ্য, ক্রিকেট প্রেমীদের কাছে অনলাইন গেমিং অ্যাপের মাধ্যমে টাকা রোজগার পদ্ধতি ফান্টাসি ক্রিকেট নামেই পরিচিত। মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলির মত ক্রিকেটের তাবড় তাবড় সেলিব্রেটি যেমন এই ধরনের অ্যাপগুলির প্রচার চালান তেমনি বলিউডের নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি থেকে শুরু করে টলিউডের প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও অনলাইন গেমের প্রচার করে থাকেন।

অন্ধপ্রদেশ সরকারের বক্তব্য, দেশের যুব সম্প্রদায়কে অনলাইনে টাকা রোজগার হাতছানি থেকে রক্ষা করার জন্য এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশের পাশাপাশি তেলেঙ্গানা তো অনেক আগেই এই ধরনের গেমিং অ্যাপের ব্যবহার বাতিল করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, নাগাল্যান্ড অসম এবং সিকিমের মত রাজ্যেও এই ধরনের অ্যাপের ব্যবহার নিষিদ্ধ।