গোড়ালির হাড়ে চোট গুরুতর, বিশেষ পর্যবেক্ষণে মুখ্যমন্ত্রী

গতকাল নন্দীগ্রামে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে পড়ে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার ফলে পায়ের গোড়ালিতে গুরুতর ভাবে আঘাত পেয়েছেন তিনি। এছাড়াও পায়ের পাতা, ডান হাত, গলা এবং ডান কাঁধেও আঘাত পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বর্তমানে তিনি কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এসএসকেএম হাসপাতালের অধিকর্তা চিকিৎসক মণিময় বন্দ্যোপাধ্যয় জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে প্লাস্টার করতে হয়েছে।

গতকাল নন্দীগ্রামে আঘাত পাওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রীকে প্রথমে গ্রিন করিডোর মারফত এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে উডবার্ন ওয়ার্ডের সাড়ে ১২ নম্বর কেবিনে ভর্তি করে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা এবং অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানোর পর চিকিৎসকেরা বাঙুর ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস-এ তার এমআরআই করানোর সিদ্ধান্ত নেন।

সেইমতো অ্যাম্বুলেন্স মারফত বাঙ্গুর হাসপাতালে পৌঁছে এমআরআই করিয়ে ফের রাত একটা নাগাদ এসএসকেএমের উডবার্ন ওয়ার্ডেই ফিরিয়ে আনা হয় মুখ্যমন্ত্রীকে। আপাতত ৪৮ ঘন্টা মুখ্যমন্ত্রীকে পর্যবেক্ষণে রাখবেন চিকিৎসকেরা। চিকিৎসক মহল সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর সিটি স্ক্যান করানো হবে।

মুখ্যমন্ত্রীর যাবতীয় শারীরিক পরীক্ষার রিপোর্ট খতিয়ে দেখে এসএসকেএম হাসপাতালের অধিকর্তা জানিয়েছেন, বাঁ পায়ের গোড়ালি ও পায়ের পাতার হাড়ে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। যার ফলে ওই জায়গায় রক্ত জমাট বেঁধে রয়েছে। চোট পেয়েছেন ডান কাঁধে, গলায় এবং ডান হাতেও। তার সঙ্গেই বুকে ব্যথা এবং শ্বাসকষ্টও অনুভব করছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।