ফের শোকের ছায়া টেলিভিশন জগতে, কিডনির রোগে মৃত্যু অভিনেত্রী লীনা আচার্যের

২০২০কে বিদায় জানানোর জন্য রীতিমতো দিন গুনছেন মানুষ। চলতি বছরটা দেশবাসীর জন্য যেন এক দুঃস্বপ্ন স্বরূপ। বিশেষত রুপোলী দুনিয়ার একের পর এক নক্ষত্র পতন ঘটেছে এই দুর্বিষহ বছরে। বলিউড, টলিউড নির্বিশেষে মহা তারকারা একের পর এক পাড়ি জমিয়েছেন ভিন দুনিয়ায়। বলিউড জুড়ে এখন শুধুই হতাশা। তবে দুঃসংবাদের আঘাত থেকে এখনই মুক্তি পাচ্ছে না বলিউড। বি-টাউনে আরও একবার নক্ষত্র পতন ঘটলো।

শনিবার দিল্লির একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী লীনা আচার্য। সূত্রের খবর, দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর ধরে কিডনি জনিত সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। কিডনি বিকল হয়েই মৃত্যু হয়েছে তার। উল্লেখ্য, প্রথমে লীনার মৃত্যুর কারণ হিসেবে করোনাকে দায়ী করেন নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় রটে যায়, করোনা আক্রান্ত হয়েই অভিনেত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

পরে অবশ্য পরিবারের তরফ থেকে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ প্রকাশ্যে আনা হয়। উল্লেখ্য, কিডনী বিকল হয়ে যাওয়াতে লীনার মেয়ে মাকে বাঁচানোর জন্য নিজের একটি কিডনী দান করেছিলেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু লীনাকে বাঁচানো সম্ভব হয় নি। উল্লেখ্য, বলিউডের অভিনেত্রী লীনা আচার্য রানি মুখার্জির “হিচকি” ছবি, ওয়েব শো “ক্লাস অফ ২০২০”, “শেঠজি আপকে আ জানে সে”, “মেরি হানিকারক বিবি”র মতো জনপ্রিয় টেলি শোতে অভিনয়ের দরুন দর্শকের কাছে প্রভূত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন।