৩০ শতাংশ সংখ্যালঘু এক হলে চারটি পাকিস্তান তৈরি হবে: মন্তব্য তৃণমূল নেতার

ফাইল ছবি

নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে রাজ্যের রাজনীতির পারদ তত চড়ছে। রাজনীতির তরজা মানেই রাজনৈতিক নেতা-কর্মীর মুখে অকথা-কুকথার বন্যা বয়ে যাওয়া। এমনিতেই কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিমের “মিনি পাকিস্তান” মন্তব্যের জেরে ঘোর অস্বস্তিতে শাসক দল। এবার সেই তৃণমূলেরই এক কর্মীর মন্তব্যে বাংলার বুকে ফের উঠে এলো পাকিস্তান প্রসঙ্গ! যার জেরে ফের অস্বস্তিতে তৃণমূল।

গত বুধবার বীরভূমের নানুরের বাসাপাড়ায় তৃণমূলের তরফ থেকে আয়োজিত পথসভায় তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য শেখ আলম এই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন। “ভারতবর্ষে ৩০ শতাংশ লুঙ্গি পরা মানুষ রয়েছেন!”, বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর এহেন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপিকে কটাক্ষ করতে তার মন্তব্য, ভারতে যে ৩০ শতাংশ সংখ্যালঘু রয়েছেন তাদের একত্রিত করলে চারটে পাকিস্তান তৈরি হবে!

প্রসঙ্গত, এদিন তৃণমূলের তরফে আয়োজিত পথসভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ কেরিম খান। তৃণমূল কর্মীর এহেন মন্তব্যের জেরে রাজনৈতিক মহলে প্রবল বিক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এই বিতর্কে প্রেক্ষাপটে বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের দাবি, ওই ব্যক্তি তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য নন। তবে এহেন দাবিতেও অবশ্য স্বস্তি মিলছে না।

তৃণমূল সদস্যের এই বিতর্কিত মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে দলের তীব্র সমালোচনা করছেন বিরোধীরা। এই বিতর্কিত মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সরাসরি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে তার মন্তব্য, পশ্চিমবঙ্গকে বৃহৎ বাংলাদেশে পরিণত করে সেখানকার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! তাই তার দলের নিচুস্তরের কর্মীরা যে এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করবেন, সেটাই স্বাভাবিক।