গাড়ির দিকে ছুটে আসছে প্রকান্ড হাতি, সকলেই বলছেন কিছু হবে না, এরপর যা হলো

সামনে যদি দেখা যায় সমূহ বিপদ, তাহলে অনেক সময়ে আমরা ভগবানকে ডেকে থাকি। কখনো যদি সময়ের সাথে সাথে আমরা বিপদ থেকে সরে যেতে পারি, তাহলে একমাত্র নিজেকেই নিজের মনের জোর বাড়াতে হয়। এমনই একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে, যা দেখলে মুহূর্তের মধ্যে আপনি হয়ে যেতে পারেন বিস্মিত এবং একইসঙ্গে স্তম্বিত। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে একটি গাড়ি। গাড়ির দিকে ক্রমশ ধেয়ে আসছে একটি হাতি।

হাতিটি যত গাড়ির দিকে ধেয়ে আসছে, ততোই গাড়ির ড্রাইভার আস্তে আস্তে পিছিয়ে দিচ্ছে তার গাড়ি। এইভাবে আস্তে আস্তে মৃত্যুর থেকে একটু একটু যেন দূরে সরে যাচ্ছে যাত্রী। এরই মধ্যে হঠাৎ করে শোনা গেল মহিলা কন্ঠ, তিনি বলছেন কিছু হবে না। সব ঠিক হয়ে যাবে। তার কথা শুনে সহমত পোষন করলেন চালক ও।

কিন্তু মহিলা কন্ঠ কথাটি বলার পর যেন হাতিটি আরো বেশি করে তেড়ে এলো তাদের দিকে। মুহুর্তের মধ্যে সকলেই চিৎকার করে দৌড় দিতে আরম্ভ করলেন। ভিডিওটি শেয়ার করেছেন আইএএস অফিসার সুরেন্দ্র মেহেরা। ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করে তিনি জানিয়েছেন যে, বন্য পশুদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা থাকা উচিত। তাদের অকারণে উত্তপ্ত করা আমাদের একেবারেই উচিত নয়।

এরপর তিনি প্রশ্ন করেন যে, বন্যপ্রাণী এবং বিশেষত হাতির মুখোমুখি হয়ে এরকম ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা আপনাদের কজনের হয়েছে? জঙ্গলের হাতি সামনা সামনি হলে তাদের জায়গা ছেড়ে দেওয়া আমাদের কর্তব্য বলে মনে করেন তিনি। আমরা যত তাদের বিরক্ত করবো, তাতো তারা বিরক্ত হবে। তাই নিজেদের শখ মেটানোর জন্য জঙ্গলের পশু পাখিদের বিরক্ত না করাই উচিত।