বিজেপির হয়ে প্রচারে নেমে “অলক্ষ্মী” তাড়ানোর স্লোগান তুললেন হিরণ

একুশের লড়াইয়ে বাংলা থেকে “অলক্ষ্মী” বিদায় করে লক্ষ্মী প্রতিষ্ঠা করতে চান বিজেপির নবাগত সদস্য তথা টলিউড অভিনেতা হিরণ। গত ১৮ই ফেব্রুয়ারি নামখানায় অমিত শাহের নেতৃত্বে আয়োজিত রাজনৈতিক সভায় তৃণমূল দল ত্যাগ করে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপি দলে যোগদান করার পরপরই তার মুখে শোনা গিয়েছিল এই কথা। রবিবার ফের বিজেপির হয়ে প্রচার চালানোর সময় একই কথা বললেন হিরণ।

এদিন কর্মসংস্থান প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারকে বিঁধেছেন তিনি। তিনি বলেন, “বাংলার যে ছেলেমেয়েরা কাজের খোঁজে ভিন রাজ্যে চলে গিয়েছেন তাদের ফের রাজ্যে ফিরিয়ে আনতে হবে। সকলের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। আমরা চাই তারা পরিবারের কাছে ফিরে আসুন।” এর জন্য বাংলা থেকে “অলক্ষ্মী” বিদায় করতে হবে বলে মনে করেন হিরন।

“গত ৪৪ বছর ধরে “অলক্ষ্মী” রাজ্যে ডেরা বেঁধে রয়েছে। সেই অলক্ষ্মীকে দূর করতে সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করতে হবে”, বিজেপির ভোট প্রচারে নেমে এমনটাই বলেছেন হিরণ। একই সঙ্গে প্রাক্তন তৃণমূল নেতা রাজ্য শাসকদলের বিরুদ্ধেও নিজের হতাশা ব্যক্ত করেছেন। বিজেপির দলীয় পতাকা হাতে তুলে নেওয়ার পরপরই তিনি বলেন, ২০১৪ সালে অনেক আশা নিয়ে একটি রাজনৈতিক দলে যোগদান করেছিলেন তিনি।

হিরন জানিয়েছেন, রাজনীতিতে যোগদান করে সেই রাজনৈতিক দলের থেকে বাংলায় পরিবর্তনের আশা করেছিলেন তিনি। কিন্তু বিগত ছয় বছরে বাংলার রাস্তায় নীল-সাদা রং ছাড়া আর কোনো উন্নতি হয়নি বলেই সমালোচনা করেছেন হিরণ। তাই এবার নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে নতুন কর্মযজ্ঞে যোগদান করেছেন তিনি। বঙ্গ বিজেপি শিবিরের তরফ থেকে আয়োজিত “ভোট ফর মোদি”, “রান ফর মোদি” এবং “মোদিপাড়া”য় যোগদান করে বাংলায় বিজেপিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে সামিল হয়েছেন হিরন।