সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার আরও উন্নতি, স্বস্তির রিপোর্ট দিল ডাক্তার

বাংলা চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কয়েকদিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি গত ৬ই অক্টোবর থেকে দক্ষিণ কলকাতার বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। অবস্থা বেশি সংকটজনক হয়ে গেলে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। সোশ্যাল মিডিয়াতে বিদায় ফেলুদা বলে লেখা হয়। পরে এইসব পোস্ট ডিলিট করে দেওয়া হয়। তবে এই সংকটজনক পরিস্থিতি কাটিয়ে আশার আলো দেখা যাচ্ছে।

৮৪ বছরের এই অভিনেতার সংকটজনক পরিস্থিতির আর নেই। তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। করণা পজিটিভ আসার প্রায় ১৪ দিন পর পুনর্বার তার করোনা টেস্ট করা হয় তাতে রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া গেছে। তবে অভিনেতার এখনো বিপদের আশঙ্কা কাটেনি বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তার চিকিৎসার জন্য ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অরিন্দম করের নেতৃত্বে গঠন করা হয়েছে ১৬ জন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ৮৪ বছরের এই বৃদ্ধক করোনা আক্রান্ত হলেও তাকে কাবু করতে পারিনি এই মারণব্যাধি। তবে তাকে কাবু করে ফেলেছে মস্তিষ্ক এবং স্নায়ুগত সমস্যাতে। ডাক্তারি পরিভাষায় যাকে বলা হয় কোভিড রিলেটেড এনসেফালোপ্যাথি। এই কারণে তিনি কয়েক দিন আগে সোফায় বসে বই পড়তে পড়তে হঠাৎ এই অচৈতন্য হয়ে পড়েন। এছাড়াও তার শরীরে হাই ব্লাড প্রেসার, সুগার, সিওপিডি এবং ক্যান্সারের মতো মরণব্যাধি রয়েছে যার জন্য সত্যজিৎ রায়ের অপু এখনো বিপদমুক্ত হয়নি।