টিকিটের চাহিদা ঊর্ধ্বমুখী, যাত্রীদের সুবিধার্থে সোমবার থেকে চলবে ২০ জোড়া ক্লোন স্পেশাল ট্রেন

করোনা মহামারীর কারণে দীর্ঘ ছয় মাস ধরে দেশে ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রয়েছে। তবে লকডাউন এর মধ্যেও চলেছে স্পেশাল ট্রেন। এখনো পর্যন্ত ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক না হলেও, দেশের মেট্রো শহরগুলিতে মেট্রো পরিষেবা চালু হয়ে গেছে। তবে স্পেশাল ট্রেন এর পাশাপাশি আগামী সোমবার থেকে ক্লোন ট্রেন চালু হতে চলেছে দেশে। নির্দিষ্ট কয়েকটি রুটে যাত্রী সংখ্যা অধিক থাকায় এবং ট্রেনের চাহিদা বাড়ায় ওই রুটগুলিতে ক্লোন ট্রেন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।

ভারতীয় রেল বোর্ডের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ২০ জোড়া ক্লোন ট্রেন পরিষেবা চালু করবে ভারতীয় রেল বোর্ড। যে সকল রুটে যাত্রী সংখ্যা অধিক, অর্থাৎ ওয়েটিং লিস্টের পরে থাকা যাত্রীদের সুযোগ সুবিধার কথা মাথায় রেখেই ক্লোন ট্রেন পরিষেবা চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। লকডাউন এর পর আনলক পর্বে বিগত কয়েক মাস ধরে ট্রেনের প্রতি নির্ভরশীলতা বেড়েছে যাত্রীদের।

এদিকে ট্রেনের সংখ্যা অপ্রতুল থাকায়, ওয়েটিং লিস্টে যাত্রী সংখ্যা বাড়ছে। অনেকে আবার লম্বা ওয়েটিং লিস্ট দেখে ট্রেনে সফর করার পরিকল্পনা ত্যাগ করছেন। এখন যেহেতু অনলাইনেই ট্রেন টিকিট কাটার ব্যবস্থা করা হয়েছে, তাই সমস্ত রুটে যাত্রী চাহিদা কেমন সে সম্পর্কে ভালভাবে বুঝতে পারছে ভারতীয় রেল বোর্ড। ফলে, যাত্রীদের ট্রেন চাহিদা বুঝে সোমবার থেকেই ২০ জোড়া অতিরিক্ত ট্রেন চালু করা হবে দেশে।

রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, বেশিরভাগ ক্লোন ট্রেন বিহার থেকে ছাড়া হবে। এই ২০ জোড়া ট্রেনের মধ্যে ১৯ জোড়া ট্রেনের টিকিটের দাম হামসফর এক্সপ্রেসের টিকিটের দামের সমান হবে। এই ট্রেন গুলিতে হামসফর এক্সপ্রেসের মতই ১৮টি করে কোচ থাকবে বলে জানা গেছে। বাকি একজোড়া ট্রেনের টিকিট মূল্য জনশতাব্দীর এক্সপ্রেসের টিকিট মূল্যের সমান। এই ট্রেন গুলিতে ২২টি করে কোচের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। রেল দপ্তর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই ক্লোন ট্রেন গুলির আগামী এক সপ্তাহের টিকিট বুক করে নিয়েছেন যাত্রীরা।