মু’কে’শ আ’ম্বা’নি নিজের মা’নি’ব্যা’গে কত টা’কা রা’খে’ন জানা আছে কি? শু’ন’লে অ’বা’ক হবেন

ভারতের সবথেকে ধনী ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি সমগ্র পৃথিবীতে বিত্তবানদের তালিকায় ১১ তম স্থানে রয়েছেন। রিলায়েন্স কোম্পানির কর্ণধার মুকেশের সম্পত্তির পরিমাণ নিয়ে সাধারণের মধ্যে নানান আগ্রহ থাকে। এই মুহূর্তে মুকেশ আম্বানি ৭৯.২ বিলিয়ান অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৫.৭৮ লক্ষ কোটি টাকার মালিক! যার হাতে এত সম্পত্তি রয়েছে তিনি তার মানিব্যাগে সর্বদা কত টাকা রাখেন?

যদি এই প্রশ্ন ওঠে তাহলে বলতেই হয় মুকেশ আম্বানিকে কিন্তু এই একটি দিক দিয়েই দেশের মধ্যবিত্ত সাধারণ নাগরিক টেক্কা দিতে পারবেন। কিভাবে? কারো মুকেশ আম্বানি তার নিজের সঙ্গে কখনোই কোনো টাকা বহন করেন না। এমনকি তিনি যদি কোথাও যান, যদি বিদেশেও যান তবুও তার সঙ্গে কোনো টাকা-পয়সা থাকেনা। এমনকি তার নামে কোন ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ডও নেই। বলতে গেলে একেবারেই কর্পদক শূন্য রিলায়েন্স গ্রুপের কর্ণধার।

তাহলে তার চলে কিভাবে? এর উত্তর দিয়েছেন তিনি নিজেই। মুকেশ আম্বানি একবার একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, তার হয়ে টাকা বহন করার জন্য সব সময় একটি টিম তার সঙ্গে থাকে। তার নামে কোনো ডেবিট কার্ড নেই। তার নিজস্ব কোনো ওয়ালেট নেই যেখানে তিনি টাকা রাখেন। যখনই তার টাকার প্রয়োজন হয় তখন অন্য একজন ব্যক্তি যিনি তার সঙ্গে রয়েছেন, তিনি বিল মিটিয়ে দেন। এভাবেই তাঁর দিন চলে।

প্রসঙ্গত মুকেশ আম্বানির বাবা ধীরুভাই আম্বানিও কিন্তু এমনই ছিলেন। তিনি একবার ফ্লাইটে করে অন্য জায়গায় যাচ্ছিলেন। একেবারে একা, তার টিমের অন্যান্য সদস্যরা সেই ফ্লাইটে জায়গা পাননি। গন্তব্যের পৌঁছানোর জন্য এক সহযাত্রীর কাছ থেকে টাকা ধার করতে হয়েছিল ‌ধীরুভাইকে। এমন বাবার তো এমন সন্তানই হবেন! তাই না?