পাড়ায় পাড়ায় খুন ও ধর্ষণ হচ্ছে বাংলায়, হাথরাস প্রসঙ্গে মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

উত্তরপ্রদেশের হাথরাস গণধর্ষণ কাণ্ড নিয়ে রীতিমতো রাজনৈতিক তরজা চলছে। উত্তরপ্রদেশের যোগী প্রশাসনকে কার্যত কাঠগড়ায় তুলেছে বিরোধী কংগ্রেস, তৃণমূল সহ অন্যান্যরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। উত্তরপ্রদেশের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যমের কাছে কার্যত বাংলার আর পাঁচটা অপরাধের ঘটনা গুনিয়ে দিলেন তিনি।বিজেপির রাজ্য সভাপতির বক্তব্য, উত্তরপ্রদেশের ঘটনা নিয়ে যারা রাজনীতি করছেন, তার আগে বাংলার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখুন। দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, সারা দুনিয়ার জঙ্গিরা বাংলা থেকে ধরা পড়ছে। বাদুড়িয়া, বসিরহাট, রানিগঞ্জ আসানসোল, ধূলাগড়ের মতো বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা কেন হচ্ছে? দিলীপ ঘোষের মন্তব্য, পশ্চিমবঙ্গে শ্মশানের শান্তি বিরাজ করছে।

দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, বাংলার পাড়ায় পাড়ায় খুন-জখম ধর্ষণের মতো অপরাধ চলছে। তবে উত্তরপ্রদেশ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষের মন্তব্য, দোষীরা অবশ্যই শাস্তি পাবে। উল্লেখ্য, নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে হাথরাসে প্রবেশ করতে গিয়ে বাধার সম্মুখীন হয়েছিলেন কংগ্রেস দলনেতা রাহুল গান্ধী এবং উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষের মন্তব্য, কংগ্রেস হলো তৃণমূলের বি-টিম। তাই তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার ক্ষমতা নেই কংগ্রেসের।

এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীকেও আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তার দাবি, “লোকদেখানো” আন্দোলন করছেন অধীর চৌধুরী। দিলীপবাবুর মন্তব্য, প্রয়োজনে তৃণমূলের সঙ্গে সন্ধি করতেও পিছপা হবেন না অধীর চৌধুরী। কেন্দ্রের প্রণীত নতুন কৃষি আইন নিয়েও বিরোধীদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন দিলীপ ঘোষ। তার মন্তব্য, নতুন আইন নিয়ে কৃষকদের কোনো সমস্যা নেই। তবে নতুন আইন অনুসারে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, সেই দালালরাই দেশে উত্তেজনা ছড়াচ্ছে।