“দিদি” যতদিন ছিলেন ভালো ছিলেন, “পিসি” হতেই সব লন্ডভন্ড: রাজীব

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণপর্ব আজ থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে। এই যুদ্ধের প্রধান শক্তিশালী প্রতিপক্ষ হলো বিজেপি এবং তৃণমূল। লড়াইটা মূলত রাজ্যের শাসক দল এবং কেন্দ্রীয় শাসক দলের মধ্যেই বেঁধেছে। ডোমজুড়ের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছেন প্রাক্তন তৃনমূল সদস্য রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমান বিজেপি সদস্য রাজিব ইদানিং প্রায়ই তার “মাদার ফিগার” মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টার্গেট করছেন।

গত শুক্রবার বিজেপির হয়ে হুগলির প্রচার সভায় অংশগ্রহণ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি টার্গেট করে রাজিবের মন্তব্য, উনি যতদিন “দিদি” হয়েছিলেন ততদিন ভালো ছিলেন। মানুষের পাশে ছিলেন। তবে যখন থেকে তিনি “পিসি” হয়ে গিয়েছেন তখন থেকে তৃণমূল দলটাই কার্যত লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে!

শুক্রবার বিকেলে হুগলির জাঙ্গীপাড়া বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী দেবজিৎ সরকারের সর্মথনে বিজেপির তরফ থেকে আয়োজিত প্রচার সভায় অংশগ্রহণ করেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দেবশ্রী চৌধুরী। রাজীব এদিন বলেন, মানুষের জন্য কাজ করলে আজ কেন্দ্রের সঙ্গে এভাবে বচসায় জড়াতে হতো না।

তিনি আরো বলেছেন, একটা রাজ্যের অর্থনীতির উন্নয়ন ঘটাতে হলে কেন্দ্রের সঙ্গে বচসায় না জড়িয়ে বরং রাজ্যকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে শিখতে হয়। মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন আর রাজ্যের গর্ব নন। তিনি বরং রাজ্যকে খর্ব করছেন!