নোংরা রাজনীতি হচ্ছে, রাজ্যে বন্ধ হতে পারে রেশন ব্যবস্থা !

এমনিতেই করোনার জেরে রাজ্য সরকারের তরফে আগামী ছয় মাস রাজ্যের সমস্ত বাসিন্দাদের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা ঘোষনা করেছে রাজ্য সরকার। সেই মতো এপ্রিল মাস থেকেই শুরু করা হয়েছে বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী দেওয়া। অন্যদিকে আবার কেন্দ্র সরকারের তরফেও কিন্তু বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী দেওয়ার কথা ঘোষনা করা হয়েছে।

তিনমাস অবধি দেশের কোটি কোটি রেশন গ্রাহক বিনামূল্যে রেশন পাবেন। তবে রেশনের মাল তুলতে গিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় নানা সমস্যা দেখা দিয়েছে।বেশ কয়েকটি দোকানে বিক্ষোভ দেখা গিয়েছে। তাই এবার রেশন নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে বিক্ষোভের জন্য রেশন দোকান বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলে ঘোষনা করল রাজ্য সরকার। নবান্নের তরফে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছে। আসলে অনেক রেশন দোকান থেকে রেশনের মাল পাচ্ছেন না গ্রাহকরা।

এই অভিযোগ আসতেই রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মানুষ যাতে রেশন ঠিক করে পান তার জন্য কড়া নির্দেশ দিয়েছেন।
পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী এদিন যে সমস্ত রোশন দোকানে নেতারা রেশনের দ্রব্য সংগ্রহে বাধা দেবে সেই সমস্ত দোকানে রেশনের দ্রব্য দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হবে জানান। এবং পরিস্থিতিত স্বাভাবিক হলে তবেই রেশন দোকান খুলবে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, রাজ্যে রেশনের কালোবাজারি যাতে না হয় তার জন্য ইতিমধ্যেই নতুন খাদ্য সচিব নিয়োগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এক্ষেত্রে উল্লেখ্যে আআগামী ছয় মাস রাজ্যের সমস্ত রাজ্যবাসী ৫ কেজি করে চাল পাবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে।