লোকাল কিংবা এক্সপ্রেস, এবার ট্রেনে বসেই দেখুন বিনামূল্যে সিনেমা, দুর্দান্ত সুবিধা রেলের

প্রতীক ছবি

এবার রেল মন্ত্রক যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে আরেক নতুন ধরনের সিদ্ধান্ত নিল, এতে তারা জানিয়েছে যাত্রীরা অনেকটাই উপকৃত হবে। কারণ এবার একটা বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে। আমরা যখন দূরগামী পথে যাত্রা করি, তখন কিন্তু আমাদের সাথি হয় বই। বিশেষ করে এক গেলে। সেখানে তখন মোবাইলও আমাদের সাথ ছেড়ে দেয়। কিভাবে দেবে সাথ আপনারাই বলুন। আমরা ট্রেনে মোবাইল অন করলেই নেটওয়ার্কের বাজে পরিস্থিতির জন্য মন খারাপ হয়ে যায়।

যাদের দিনের অর্ধেক সময় স্যোশাল মিডিয়ায় কাটায়, তাদের অবস্থা একেবারে যা তা হয়ে যায়। কারণ তাদের পছন্দের সেই স্যোশাল সাইটগুলো ঠিকঠাক সার্ফিং হতেই চায় না। এইসব অসুবিধার কথা মাথায় রেখে এবার রেল মন্ত্রক দারুণ এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এবার থেকে লোকাল কিংবা ,এক্সপ্রেস ট্রেনে খুব সহজেই বসে মনোরঞ্জোনের জিনিস (সিনেমা) দেখতে পারবেন।

এতে আর হবে না কোনও রকম বাফারিং। আজ পিযূষগোয়েল টুইট করে এই সম্পর্কে লিখেছে, “ এখন থেকে যাত্রীরা খুব সহজেই ট্রেনে বসে মোবাইল সার্ফিং করতে পারবেন। আর তা কোনও রকম বাফারিং ছাড়াই। এই বিষয়ের এবার মূল দায়িত্ব রেল টেলের”।


রেলটেল হল রেল মন্ত্রকের একটি সংস্থা, যে এই সব নেটওয়ার্কের ব্যাপারগুলো দেখে। এই যে পরিষেবা দিতে চলেছে এর নাম রাখা হয়েছে কন্টেন্ট অন ডিমান্ড। আপনার ইচ্ছেমতো সব সিনেমা দেখতে পারবেন। তাও আবার কোনও রকম বিজ্ঞাপন ছাড়াই। এবার এই যে সিনেমা দেখার জন্য তা সরবরাহ করা সেটা করবে কে? এই প্রশ্ন সবার মনেই আসতে পারে।

এটা আসলে জোগান দেবে জি এন্টারটেনমেন্ট মার্গো নেটওয়ার্ক। এখন আপাতত ৮,৫০০ এর মতো ট্রেনে পরিষেবা চালু করা হবে। সাথে যেসব প্ল্যাট ফর্মে ওয়াই ফাই নেটওয়ার্কিং সুবিধা আছে সেখানেও পাওয়া যাবে এই সুবিধা। জানা গেছে মোট ৫,৫৬৩ টি স্টেশনে এই পরিষেবা মিলবে। এক্সপ্রেস, লোকাল সব ধরনের ট্রেনে এই সুবিধা খুব সহজেই পাওয়া যাবে।

শহরতলির সব ট্রেনে, কিন্তু আপাতত হাতে গোনা কয়েকটা ট্রেনে এই সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু ২০২২ এর মধ্যে সব ট্রেনেই এসে যাবে এই সুবিধা। পরবর্তীতে এই ট্রেনের নেটোয়ার্ক দিয়ে গান, লাইফস্টাইল, সিনেমা, খবর, ই কমার্সের সব ধরনের সুবিধাই পাওয়া যাবে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন