ছাদ থেকে পড়ে রহস্য মৃত্য ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ছাত্রের! চাঞ্চল্য এলাকায়

ছাদ থেকে পড়ে রহস্য মৃত্য ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ছাত্রের

কোচবিহারঃ কোচবিহার থেকে পদাতিক এক্সপ্রেস চেপে তাঁর বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল আজই। কিন্তু সেই যাওয়া আর হয়ে উঠল না। নিউ কোচবিহার স্টেশনে যাবার কিছুক্ষণ আগেই হস্টেলের ছাদ থেকে পরে মৃত্যু হয় ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের এই ছাত্রের। এই রহস্য মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল কোচবিহারে।

জানা গেছে, রবিবার বিকেলে কোচবিহারের গভঃমেণ্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ হোস্টেলের ছাদের থেকে হঠাৎ করে পরে যায় বিজন বনিক নামে এক ছাত্র। সে মেকানিক্যালের চতুর্থ বর্ষের পাঠরত। তড়িঘড়ি তাঁকে কোচবিহার সরকারী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সোমবার তাঁর ময়না তদন্ত হবে। পুলিশ এই মেধাবী ছাত্রের অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

বিজনের সহপাঠী সুপ্রতিম বারিক জানিয়েছেন, হঠাৎ করে শব্দ পেয়ে ছুটে এসে দেখি বিজন আহত অবস্থায় পরে রয়েছে। সাথে সাথে ওকে সরকারী হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সে সময় সে সঠিক ভাবে কথা বলছিল এবং সকলকে চিনতেও পারছিল। কিন্তু পরে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃত ওই যুবকের বাড়ি দক্ষিন ২৪ পরগণার ডায়মন্ড হারবার।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

এবিষয়ে কলেজের অধ্যাক্ষ পবন দেব জানিয়েছেন, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে এসেছেন। এরপরেই মর্মান্তিক বিষয়টি তিনি জানতে পারেন, যা অত্যন্ত দুঃখ জনক বলে মন্তব্য করেন।