উত্তেজনা উস্কে একি করছে আমেরিকা! পরিস্থিতি জটিল হওয়ার আশঙ্কা

এমনিতেই বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মার্কিন সেনাদের আক্রমণে নিহত হয়েছে ইরাকের সেনাপ্রধান এই নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরাকের মধ্যে একপ্রকার যুদ্ধের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে। যদিও বাগদাদের সরকারি এক আধিকারিক আমেরিকার এই কার্যকলাপের জন্য বিক্ষোভ হতে পারে বলেই আশঙ্কা বার্তা দিয়েছেন তাই শুক্রবার কয়েক হাজার সাধারণ মানুষ বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে হামলা চালানোর পর এবার মধ্যপ্রাচ্যে কয়েক হাজার সৈন্যকে পাঠাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

যদিও মার্কিন এয়ার স্ট্রাইকে সোলেমানের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর রটেছে কিন্তু সেই খবর অস্বীকার করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আর স্ট্রাইকের সঙ্গে ওই সেনা মোতায়েনের কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানানো হয়েছে। তবে আগে থেকেই 650 সেনা মোতায়েন করা হয়েছিল কিন্তু এবার নতুন করে আরও কয়েক হাজার সেনা সেখানে দু মাস থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত শুক্রবার সকালে বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আমেরিকার রকেট হামলায় এক ইরাকের উচ্চপদস্থ সেনা আধিকারিকের মৃত্যু হয়েছে। এমনকি পেন্টাগনের তরফে এই হামলার কথা স্বীকার করা হয়েছে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন