পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া! দাম কমাতে বিরাট পদক্ষেপ কেন্দ্রের

এবার পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া। আর এর জন্যই এবার সাধারণ মানুষের নাজেহাল দশা। এবার তাদের কথা ভেবে কেন্দ্রীয় সরকার বিদেশ থেকে ১.২ লাখ টন পেয়াজ আমদানী করবে। নির্মলা সীতারমন বলেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের সবুজ সংকেত মিলেছে আর এর পরেই আর দেরি না করে বিদেশ থেকে পেয়াজ আমদানী করা হবে।এখন পেঁয়াজের দাম এতোটাই বেড়েছে যা ভাবলেই অবাক লাগে। এখন অনেক জায়গায় পেঁয়াজের দাম ১০০-১২০ টাকার মতো।

এবার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে বিদেশ থেকে যে পেয়াজ আমদানীকরা হবে তা ডিসেম্বরের মধ্যেই সারা দেশের সরবরাহ করতে হবে, এবার এই সরবরাহর দায়িত্ব দিয়েছে নাফেদকে। তারাই আমদানিকৃত পেয়াজ সারা দেশে এবার পৌছে দেবে।

সাথে খাদ্য মন্ত্রী রাম বিলাস পাসয়ান জানিয়েছেন এমএমটিসিকে এই পেয়াজ আমদানির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তারা ডিসেম্বরের মধ্যেই এই পেয়াজ আমদানী করে দেশের বাজারে পৌছে দেবে। এখনপর্যন্ত ৪ হাজার টন পেঁয়াজের টেন্ডার জমা পড়েছে।

এবার পেঁয়াজের চাহিদা অনুযায়ী পেঁয়াজের জোগান নেই, তার ফলে দেশে পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া হয়ে গেছে। এবার রিপোর্টে ধরা পড়েছে , পেঁয়াজের উৎপাদন এবার ২৬% কমেছে। ফলে এখন পেয়াজ নিয়ে দেশে এতো খারাপ অবস্থা, যে পেঁয়াজের দাম ২৩ টাকা প্রতি কেজি থাকা উচিৎ সেই পেয়াজ এখন ১০০ টাকা ছাড়িয়ে গেছে।

সরকারের তরফ থেকে জানানো হয় এই পেঁয়াজের অভাব দূর করার জন্য সংযুক্ত আরব আমীরশাহী সহ অন্যান্য দেশ থেকে পেয়াজ আমদানি করা হবে। এখন সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই অবস্থা দূর করার জন্য যেকোনো দেশ থেকেই পেয়াজ আমদানি করা যাবে কিন্তু তা যেনো ফাইটোস্যানিটারি ও ফিউমিগাশন শর্ত মেনেই হবে। সাথে সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ৫০০ টন পেয়াজ দরদাতাদের দরপত্র করে নিতে হবে, আর এদিকে ডিপোর ক্ষেত্রে ২৫০ টন পেয়াজ দরপত্র করে নিতে হবে।