হাসপাতালে দাড়িয়েই বিয়ে করলেন যুবক-যুবতী! কারণ জানতেই মুগ্ধ নেট জগত

হাসপাতালে দাড়িয়েই বিয়ে করলেন যুবক-যুবতী

হাসপাতালে দাড়িয়ে নবদম্পতি বিয়ে সেড়ে ফেললেন, আর সেই খবর বাইরে ছড়াতেই সবাই তাদের প্রশংশায় পঞ্চমুখ। কারন যে কারণে তারা এতো তারাহুড়ো করে বিয়েটা সেড়ে ফেললেন তার কারণ জেনেই মানুষ অভিভূত।

ছেলের বাবা অসুস্থ, সামনেই এক বড় অপারেশন। আর তা না করলে শরীর আরও খারাপ হয় যেতে পারে। তাই এই সিদ্ধান্ত নিল এই দম্পতি, তারা একে অপরকে অনেকদিন থেকেই ভালোবাসতো। এবার যাতে শ্বশুর বিয়ে দেখে যেতে পারে তার জন্যই পুত্রবধূ বিয়ের পোশাকে হাজির হয়ে গেলেন হাসপাতালে। পরনে ছিল হাসপাতালের গ্লাভস।

ছেলের বাবা খুবই অসুস্থ, তারা কথা মাথায় রেখেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের সাথে কোওপরেট করেন, সেখানে ডাক্তার থেকে শুরু করে নার্সরা উপস্থিত ছিলেন। ছোটখাটো করে জাকজমগ করেই করা হয় অনুষ্ঠান , সেখানেই আয়োজন করা হয় খাওয়া দাওয়ার।

এই দম্পতির বিয়ে হওয়ার কথা ছিল অনেক আগেই কিন্তু, তারা যখন বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তখনই ছেলের বাবা অসুস্থ হয়ে পরে। আর তাদের বিয়ে আবার পিছিয়ে যায়। কিন্তু তারা এবার এই সিদ্ধান্ত আচমকাই নিয়ে নেয়, আর বিয়ে করে ফেলে একেবারে হাসপাতালে।

এই খবর পেয়ে ছেলের বাবা খুব খুশি হয়েছেন। ছেলের বাবার প্রথমে ডায়াবেটিস ধরা পরে এবং তার থেকেই সেপসিস হয়। তখন ডাক্তাররা জানায় তার অস্ত্র প্রচার না করলে বাচানো মুশকিল হবে, এর জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয় এই নব দম্পতি। যখন পুত্রবধূ শুনতে পায় যে তার শ্বশুর হাসপাতালে ভর্তি, তখন সেও অনেকটাই মুষড়ে পরে।

তারা যখন বিয়ে করে ফেলে, তখন ছেলের বাবা এই খবর জানতে পেয়ে বলে, আমি খুবই খুশি, এই বুড়ো মানুষটিকে যে ভুলে যায় নি এটাই আনন্দের। তাদের মধ্যে এমন এক আবেগঘন মুহুর্ত তৈরী হয় , যা দেখে চোখে জল এসে পরে। আর এটা স্যোহাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় নিমেষে। এর পরে নেটিজেনেরা তাদের প্রসংশায় পঞ্চমুখ হয়ে যায়।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন