বাংলায় NRC নিয়ে কলকাতায় এসে চূড়ান্ত ঘোষণা আমিত শাহের, তোলপাড় রাজ্য জুড়ে

471

অমিত শাহ কলকাতায় এসে এবার জানিয়ে দিল বাংলাতেও হবে এন আর সি, কিন্তু তার আগে পাশ হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। তিনি বলেছেন এন আর সি সব জায়গাতেই হবে, কোনও জায়গা বাদ যাবে না। কিন্তু তিনি কলকাতার উদ্যেশে বলেছে। আমরা কোনও শরণার্থী ভাই বোন্দের দেশ ছাড়া করব না। মমতা ব্যানার্জী প্রথম থেকেই বলে চলেছে, শরনার্থীদের দেশ ছাড়া হতে হবে, কিন্তু এইসব ভুল কথা।

হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, ক্রিশ্চান কেউ ভারত থেকে বাইরে যাবে না, কিন্তু আমরা এন আর সি করে অনুপ্রবেশকারীদের বেছে বের করব, এবং তাদের দেশ থেকে বের করব। মমতা ব্যানার্জী ভুল কথা ছড়াচ্ছে, আর মানুষকে ভয় দেখাচ্ছে। একটা সময় মমতা ব্যানার্জিও এই অনুপ্রবেশকারীদের দেশের বাইরে বের করার জন্য আন্দোলন করেছিল, সেটা ভুলে গেলে চলবে না।

কিন্তু সাথে তিনি বলেছেন এন আর সি হবে ঠিকই কিন্তু তার আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হবে। আসলে এই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আনা হয় ২০১৬ সালে ১৯ জুলাই। সেই বিল চলে যায় সংসদীয় কমিটির হাতে, সেখানে আবেদন জানানো হয় পুরানো যে নাগরিকত্ব বিল আছে তা পরিবর্তন করা হবে। কারন সেই পুরানো বিলে আছে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান সব দেশের লোকই ভারতের নাগরিকত্ব পেতে পারে।

আগে যেমন স্বাভিবিক ভাবে নাগরিকত্ব পাওয়ার সময় সীমা ছিল ১৪ বছর এখন তা কমিয়ে ৬ বছর করা হয়েছে। আসলে এই পুরোনো বিলে বলা হয়েছে অনুপ্রবেশকারীরাও ভারতের নাগরিকত্ব পাবে, আর তার জন্যই এখন অসুবিধার মধ্যে পড়েছে সরকার। এবার তা আর হতে দেবেনা কেন্দ্র, তাই তারা এবার এর পরিবর্তন করতে এতোতা উদ্বেগ প্রকাশ করছে।

এই এন আর সির আগে যদি কেন্দ্র নাগরিকত্ব বিল সংশোধন করে ফেলতে পারে তাহলে সহজেই অনুপ্রবেশকারীদের দেশ ছাড়া করতে পারবে, এর আগে এখন তারা এন আর সি করতে চাইছে না। যদি এন আর সি করে অনুপ্রবেশকারীরা বাদ পরে তাও তারা নিয়ম হিসেবে ভারতের নাগতিকত্ব পেয়ে যাবে, তাই এখন সরকারের এটাই সিদ্ধান্ত।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন