জমে উঠেছে ছটপূজো জলপাইগুড়িতে

99

জলপাইগুড়ি:- ছটপূজো কার্তিক মাসের শুক্লা পক্ষের ষষ্ঠী তিথিতে পালন করা হয়। সূর্যদেব ও তার স্ত্রী ঊষাকে আরাধনার মাধ্যমে এই পূজা করা হয়। কার্তিক শুক্লা চতুর্থী থেকে কার্তিক শুক্লা সপ্তমী অবধি চারদিন ধরে ছটপূজো হয়। নিয়মরীতি অনুযায়ী ব্রতের প্রথম দিন ব্রতীর ঘরবাড়ি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে স্নান করে নিরাময় খাওয়া দাওয়া করতে হয়। দ্বিতীয় দিন থেকে উপবাস শুরু হয়। দিনভর নিৰ্জলা উপবাস পালনের মাধ্যমে ব্রতী সন্ধ্যায় পূজার শেষে ক্ষীর ভোগ খাওয়া দাওয়া করেন। এটাকে খরনা বলা হয়। তৃতীয় দিন নদীর ঘাটে গিয়ে অস্তগামী সূর্যকে দূধ অর্পণ করেন ব্রতীরা।

এছাড়াও ব্রতের শেষদিন পূনরায় ঘাটে গিয়ে উদীয়মান সূর্যকে পবিত্র চিত্তে অর্ঘ্য প্রদানের পর উপবাসভঙ্গ করা হয়। পূজার প্রসাদ ক্ষীর , ঠেকুয়া , আখ ,কলা , নারকেল ,মিষ্টি। প্রধানত বিহার , ঝাড়খণ্ড এবং উওরপ্রদেশে এই পূজার বেশী প্রচলন দেখা যায়। এছাড়াও ভারতের অন্যান্য রাজ‍্য যেমন মধ্যপ্রদেশ , পশ্চিমবঙ্গ , ওড়িশা এবং নেপালে এই পূজা হয়ে থাকে‌। ছটপূজোর পেছনে বিভিন্ন পৌরাণিক কাহিনীর প্রচলন রয়েছে। প্রচলিত কাহিনী অনুযায়ী জানা যায় যে ছটপূজার সূচনা মহাভারত থেকে। সূর্য পুত্র কর্ণই সূর্যোদয়ে সূর্যের পূজা শুরু করেন। তিনি ভগবান সূর্যের সবোর্চ্চ ভক্ত ছিলেন।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন