BREAKING: কোচবিহারে ফের তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে ধুন্ধুমার, আহত ১৭

110

কোচবিহার: ফের তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে আহত ১৭ জন। ঘটনাটি ঘটেছে তুফানগঞ্জ ২ নম্বর ব্লকের শালবাড়ি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের তল্লিগুড়ি এলাকা। জানা গিয়েছে, এদিন তল্লিগুড়ি এলাকায় একটি বিজেপির সভা হওয়ার কথা ছিল। সেই ভাবেই সকাল থেকেই প্রস্তুতি চলছিল দলীয় নেতারা।

বিজেপির অভিযোগ, সেই সময় সেখানে হামলা চালায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ওই ঘটনায় আহত হন ১৭ জন বিজেপি কর্মী। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় এক জন বিজেপি কর্মী তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যদিও এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই দাবি স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের।

তুফানগঞ্জ ২ নং ব্লকের বিজেপির সংযোজক উৎপল দাস বলে,“শনিবার আমাদের তল্লিগুড়িতে সন্ধ্যায় সভা করার কথা ছিল। কিন্তু তা নিয়ে সকাল থেকে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। কিন্ত অভিযোগ, সভা শুরুর আগে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের কর্মীদের উপর আক্রমন চালায়।

তাতে আমাদের ১৭ জন বিজেপি কর্মী আহত হয়। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতাল থেকে কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তারিত করা হয়।” যদিও এবিষয়ে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ অভিযোগ করে বলেন,“তল্লিগুড়ি এলাকায় তৃণমূল কর্মীদের মারধোর ও দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর করেন।

তুফানগঞ্জের ২নং ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যরা যখন বিজেপি ছেড়ে তৃনমূলে আসেন। তখন বিজেপি তার পায়ের দলার মাটি সরে যাচ্ছে বলেই আমাদের দলীয় কর্মীদের মারধোর এমনকি খুন পর্যন্ত করতে পিছুপা হচ্ছে না। মানুষ তাদের আসল রুপ বুঝতে পেরেছে।”

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন