ফের গণপিটুনির ঘটনা ঘটলো মালদা শহরে

116

মালদা, ১৫ অক্টোবর: ফের গণপিটুনির ঘটনা ঘটলো মালদা শহরে। মোবাইল চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনির অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে, সোমবার রাতে মালদা শহরের বাশুলিতলা এলাকায়। খবর পেয়ে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ অচৈতন্য অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। জানা গিয়েছে সোমবার রাতে স্থানীয় মহিলা ঔষধ ব্যবসায়ী গায়ত্রী দাসের মোবাইল চুরির চেষ্টা করে ওই যুবক বলে অভিযোগ। ওই যুবকের সাথে আরো দুই যুবক ছিল বলে অভিযোগ ওই মহিলার। তিনি অভিযোগ করে বলেন ওষুধের দোকানে তিনি যখন ব্যবসা করছিলেন তখন তার মোবাইলটি ড্রয়ারে রাখা ছিল। সেই সময় ওই যুবক তার মোবাইল চুরি করার চেষ্টা করে। নজরে আসতে ওই যুবকের দুই সঙ্গী পালিয়ে যায়।আটকে রাখা হয় ওই যুবককে।খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলেও প্রথমে তারা ওই যুবককে উদ্ধার করে নিয়ে যেতে ইতস্তত বোধ করে।পরে তারা অচৈতন্য অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।স্থানীয় বাসিন্দা মানিক ঘোষ জানিয়েছেন, চারদিকে এই ধরনের ঘটনা ঘটেই চলেছে।

সেই কারণে পুলিশ প্রথমে আক্রান্ত যুবককে উদ্ধার করে নিয়ে যেতে অস্বীকার করে। তিনি বলেন অপরাধ যাইহোক প্রথমে ওই যুবকের চিকিৎসা করা দরকার। এরপর চাপে পড়ে পুলিশ অচেতন অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।মোবাইল চোর সন্দেহে যুবক ধরা পড়ায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। জানা গিয়েছে,একদিন আগে ওই এলাকাতেই এক পরিচয় এক পরিচারিকার কাছ থেকে নগদ টাকা ছিনতাই করে পালায় দুষ্কৃতীরা। এরপর সোমবার রাতে এই ঘটনা ঘটে যাওয়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ইংরেজবাজার থানার পুলিশ উদ্ধার হওয়া যুবকের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা করছে।তারা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।স্থানীয় বাসিন্দা মন্দিরা সরকার একদিন আগে তার বাড়ির পরিচারিকা রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় দুষ্কৃতীরা তার কাছ থেকে নগদ টাকা ছিনতাই করে পালায়। সোমবার রাতে বাশুলিতলা এলাকায় মোবাইল চোর সন্দেহে এক যুবককে ধরে মারধর এলাকাবাসী। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এই রকম আপডেট পেতে লাইক করুন