স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে স্মরণ কোচবিহারে

116
স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে স্মরণ কোচবিহারে

কোচবিহার: ফুল মালা শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হল ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে। আজ ১১ অগাস্ট, এই বীর সন্তানের ১১১ তম তিরোধান দিবস। এইদিন কোচবিহার ক্ষুদিরাম স্কোয়ারে ক্ষুদিরাম স্মৃতিরক্ষা কমিটির পক্ষ থেকে কথা, গান কবিতায় স্মরণ করা হয় এই বীর বিপ্লবীকে। এদিন ক্ষুদিরাম ও বর্তমান সামাজিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন কাজল চক্রবর্তী। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সম্পাদক চন্দন কান্তি চৌধুরী, নেপাল মিত্র, বানিকান্ত ভট্টাচার্য।

ক্ষুদিরাম বসু, যিনি ছিলেন একজন বিপ্লবী। তিনিই ভারতে ব্রিটিশ শাসনের বিরোধিতা করেছিলেন। ইতিহাসের পাতা থেকে জানা যায়, ক্ষুদিরাম ও প্রফুল্ল চাকির সঙ্গে মিলে গাড়িতে ব্রিটিশ বিচারক, ম্যাজিস্ট্রেট কিংসফোর্ড আছে ভেবে তাকে হত্যা করার জন্যে বোমা ছুড়েছিলেন। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট কিংসফোর্ড সাহেব ওই গাড়িতে ছিলেন না। সে ঘটনায় ফলে মৃত্যু হয় দুজন ব্রিটিশ মহিলার।

তারা হলেন মিসেস কেনেডি ও তার কন্যা। প্রফুল্ল চাকি গ্রেপ্তারের আগেই আত্মহত্যা করেন কিন্তু ক্ষুদিরাম গ্রেপ্তার হন। দুজন মহিলাকে হত্যা করার জন্যে তাঁর বিচার হয়। এবং তাঁর ফাঁসির আদেশ হয়। তিনিই ছিলেন ভারতের কনিষ্ঠতম বিপ্লবী যাকে এই ভাবে শহীদের মৃত্যু বরন করতে হয়েছিল।